শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৯ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৩৭

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে ২৩ মে

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা মহামারী পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আগামী ২৩ মে থেকে দেশের সব স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হবে। সেই মোতাবেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ‘করোনা বিপর্যস্ত শিক্ষা : কেমন বাজেট চাই’ শীর্ষক ভার্চুয়াল শিক্ষা সংলাপে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা সচিব মো. মাহবুব হোসেন এ কথা জানিয়েছেন।

গতকাল ‘গণসাক্ষরতা অভিযান’ এ সংলাপের আয়োজন করে। এতে শিক্ষা সচিব বক্তব্যে আরও বলেন, আমরা করোনা পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মে পর্যন্ত ছুটি বাড়ানো হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে নির্ধারিত তারিখে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে। করোনায় শিক্ষার ওপর প্রভাব এত বেশি পড়েছে যে আজকের শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতির জন্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন, করোনায় শিক্ষার যে ক্ষতি তা সবাই জানি। করোনার মধ্যে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে নিতে আমরা টেলিভিশন, অনলাইন ও রেডিওতে ক্লাস সম্প্রচার করেছি। এর পাশাপাশি মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের বাসায় অ্যাসাইনমেন্টের কাজ দেওয়া হয়েছে। আমরা সব অপশন সর্বোচ্চ ব্যবহারের চেষ্টা করেছি।

সচিব বলেন, বাজেটের বড় অংশ অবকাঠামোগত কাজে ব্যয় হয়। করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আগামী বছরের জাতীয় বাজেটে শিক্ষার বরাদ্দ বাড়ানো হবে। বাজেটে শিক্ষাকে অধিক গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের নিশ্চিত করা হয়েছে। সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরীর সঞ্চালনায় শিক্ষা সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান। পিকেএসএফ-এর চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য এরোমা দত্ত, গণসাক্ষরতা অভিযানের সহ-সভাপতি ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. মনজুর আহমেদ, শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ কাজী ফারুক আহমেদ, অ্যাকশন এইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবীর প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মূল প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন গণসাক্ষরতা অভিযানের উপ-পরিচালক কে এম এনামুল হক। করোনা সংকট থেকে উত্তোরণের জন্য আসন্ন জাতীয় বাজেটের ২০ শতাংশ শিক্ষা খাতে বরাদ্দ দিয়ে স্বচ্ছতার সঙ্গে বাস্তবায়নের দাবি জানায় গণসাক্ষরতা অভিযান।

এই বিভাগের আরও খবর