শিরোনাম
বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ টা

৩৭০০ কোটি টাকা লুটে পদক্ষেপ জানতে চান হাই কোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক

৩ হাজার ৭০০ কোটি টাকা লুটপাটের ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক পাঁচ ডেপুটি গভর্নরসহ জড়িত ২৪৯ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তা জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন হাই কোর্ট। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে গতকাল বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এ সময় আদালত বলেন, ‘এরা (দায়ী) কোথায়? তাদের বিরুদ্ধে কি মামলা হয়েছে? তাদের আটক করা হয়েছে?’

প্রতিবেদনের ওপর রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। উভয়পক্ষের বক্তব্য শুনে আদালত আগামী ১০ দিনের মধ্যে দুদককে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দেন। হাই কোর্ট বলেন, ‘তাদের বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, সেটি আমাদের জানান। যাদের নাম এসেছে তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির কোনো গন্ধ আছে কি না, হয়ে থাকলে সেটি আমরা শুনব। দুর্নীতি বা অর্থ পাচারের অভিযোগ থাকলে সেটি আমরা শুনব।’ শুনানির একপর্যায়ে দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনের বিষয়টি আমি দুদককে অবহিত করেছি। আমরা দেখতে পাচ্ছি কেঁচো খুঁড়তে সাপ বেরিয়ে আসছে। ‘৩৭০০ কোটি টাকা লুটপাটে দায়ী পাঁচ ডেপুটি গভর্নর’ শিরোনামে ১৭ অক্টোবর একটি দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেড (বিআইএফসি) ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিন্যানশিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডে (আইএলএফএসএল) আর্থিক কেলেঙ্কারির ঘটনায় দায় রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক পাঁচ ডেপুটি গভর্নরসহ ২৪৯ কর্মকর্তার। তদন্ত প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। মোট ১২০০ পৃষ্ঠার দুটি প্রতিবেদন এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরের কাছে জমা দেওয়া হয়েছে।

সর্বশেষ খবর