১৭ আগস্ট, ২০২২ ১২:২৩

বেগুন মোটেই নয় নির্গুণ

ডা. শুভাগত চৌধুরী

 বেগুন মোটেই নয় নির্গুণ

বেগুন মোটেই নয় বেগুন মোটেই নয় নির্গুণ। আমার ভাল লাগে এর মানে সবার ভাল লাগবে তা নয়।। কিন্ত এর কদর আছে দেশে বিদেশে। বেগুন নাইট সেড পরিবারের উদ্ভিদ।

অস্ট্রেলিয়া আর ক্যানাডাতে বেগুন এগ প্লান্ট হিসেবে পরিচিত। ওবারগিন বলা হয় যুক্তরাজ্যে। এই উপমহাদেশ, সিঙ্গাপুর, মালয়শিয়াতে বলা হয় ব্রিনজাল। আমরা তো বেগুন বলে থাকি।

বেগুনকে বলে সবজির রানি। এটি জনপ্রিয় আশ্চর্য পার্পল আবরণ আর প্রচুর পুষ্টি উপকরণের জন্য।
নানাভাবে রান্না হয় বেগুন। বেগুন ভর্তা, বেগুন ভাজি এমন কি তরকারিতে বেগুন দিলে হয় আলাদা স্বাদ। বেগুন দিয়ে ইলিশের ঝোল, বেগুন দিয়ে টাকি মাছের সালন খেতে দারুণ।

বেগুন ভিটামিন আর খনিজেও ভরপুর। বেগুনে আছে ভিটামিন সি, কে, বি৬, থিয়ামিন, নিয়াসিন, ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, ফসফরাস, ফাইবার, ফলিক এসিড ও পটাসিয়াম। এতে আঁশ বেশ থাকাতে হজমেও সুবিধা হয়। বেগুনে আছে কিছু ফাইটোনিউটরিয়েনটস যা মজবুত করে স্মৃতি শক্তি। 

বেগুনে থাকা আয়রন ও ক্যালসিয়াম উন্নত করে হাড়ের স্বাস্থ্য। রক্তস্বল্পতা দূরীকরণেও সহায়ক ভূমিকা রাখে বেগুন। এতে আছে নানা রকম এন্টি অক্সিডেন্ট, আছে ক্যানসাররোধী গুণ। আছে অনেক আঁশ যা হার্টের জন্য ভাল। কোলেস্টেরল কমায় বেগুন।
ওজন কমাতে দারুণ উপকারী। বেগুনে ক্যালরি কম, ফ্যাট কম, আঁশ থাকাতে পেট থাকে ভরা অনেক ক্ষণ। তাই অন্য খাবার খাওয়া হয় কম।

শুধু পার্পল নয়, সাদা রঙের বেগুনও আছে। আছে থাল বেগুন, গফরগাঁওয়ের বেগুনও প্রসিদ্ধ। লম্বা বেগুন, গুটি বেগুন আছে। শিমের ডালে লতা বেগুন, উফফ বাহ! এই বহু ভ্রমণকারী সবজির উৎস ভারত আর দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া। 

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর