শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ জুন, ২০২১ ০৯:৫৪
প্রিন্ট করুন printer

নরওয়ের বিরুদ্ধে ‘মাই নেম, মাই রাইট’ আন্দোলন তাইওয়ানিজদের

অনলাইন ডেস্ক

নরওয়ের বিরুদ্ধে ‘মাই নেম, মাই রাইট’ আন্দোলন তাইওয়ানিজদের
ফাইল ছবি
Google News

চীন ও নরওয়ের সম্পর্কের অবনতির জন্য তাইওয়ানের নাগরিকরা নিজেদের 'চীনা' হিসেবে নিবন্ধন করতে বাধ্য হয়েছিল। নিজেদের রক্ষার প্রতিবাদে ‘মাই নেম, মাই রাইট’ আন্দোলনের মামলাটি ইউরোপীয় মানবাধিকার সর্বোচ্চ আদালতে নিয়েও গত বছরের নভেম্বরে হেরে তাইওয়ানিজরা।  

তাইপেই টাইমস জানিয়েছে, ২০১০ সালে চীনের সাথে কূটনৈতিক বিরোধের পর নরওয়ে তার তাইওয়ানের অধিবাসীদের জাতীয়তা পরিবর্তন করে ‘চীনা’ করে তুলেছিল।

জোসেফ লিউ, যিনি মানবাধিকার সম্পর্কে পড়াশোনার জন্য নরওয়েকে বেছে নিয়েছিলেন, তিনি গত চার বছর ধরে তার জাতীয় পরিচয় ব্যবহারের অধিকারের জন্য দেশের সরকারের সাথে লড়াই করছেন। লিউ এবং অন্যান্যরা তহবিল সংগ্রহের জন্য ‘মাই নেম, মাই রাইট’ আন্দোলন শুরু করেন এবং কর্তৃপক্ষকে দেশের পদবী তাইওয়ানে ফিরিয়ে আনার জন্য চাপ দেন। 

লিউ অভিযোগ করেছিলেন, 'আদালতে তাদের নিজেদের প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগও ছিল না। বিচারক আমাদের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে আমাদের প্রত্যাখ্যান করেছেন। আমি নরওয়ের আইন ব্যবস্থায় বেশ হতাশ।'  

এদিকে, লিউ এবং তার দল আবারও গত মাসে ফ্রান্সের ইউরোপিয়ান কোর্ট অব হিউম্যান রাইটস (ইসিএইচআর)-এ একটি মামলা দায়ের করেছেন, যেখানে আদালতের বিশাল কেসলোডের কারণে মামলাটি গৃহীত হয়েছে কিনা তা দেখার জন্য তাদের এখন এক বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।  

তিনি আরও বলেন, 'আমরা জিতছি কি না তাতে কিছু যায় আসে না, কিন্তু আমাদের কথা বলতে হবে। কিছু না বলার অর্থ হল আমরা নিঃশব্দে চীনা হিসাবে মনোনীত হওয়ার সত্যটি মেনে নিয়েছি।'

 

বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির 

এই বিভাগের আরও খবর