Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:০১
আপডেট : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:০৩

'প্রতিপক্ষ হিসেবে বিএনপিকে সমীহ করছি, পঁচা শামুকেও পা কাটে'

দীপক দেবনাথ, কলকাতা:

'প্রতিপক্ষ হিসেবে বিএনপিকে সমীহ করছি, পঁচা শামুকেও পা কাটে'

বাংলাদেশে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ কমপক্ষে ২২০ আসনে জয়লাভ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দেশটির মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এ. কে. এম. মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন এবারও দেশের জনগণ আমাদের সরকারের পক্ষেই রায় দেবে।

বিরোধী দল বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় আওয়ামী লীগের পক্ষে কঠিন লড়াই হবে কি না সেই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, "কোনো প্রশ্ন নেই। বিএনপি গত ১০ বছরে কোন রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত নেই। তারা সন্ত্রাসের মধ্যে যুক্ত। কোন সাংগঠনিক কাজে যুক্ত নয়। কোন রিক্রুটমেন্ট, সভা-সমাবেশে যুক্ত নয়। তাদের ছাত্রদল ১০ বছর ধরে কমিটি করে না। কোন একটি রাজনৈতিক দল যদি চলমান না থাকে, তবে কিভাবে সফল হবে। তারা পুকুরের জল হয়ে গেছে, নদীর পানির মত চলমান নয়। কাজেই তারা সীমাবদ্ধ হয়ে গেছে। তবে প্রতিপক্ষ হিসেবে তাদেরকে সমীহ করছি কারণ, পঁচা শামুকেও পা কাটে। তবে আমরা সতর্ক আছি।"

রবিবার ফোর্ট উইলিয়াম-এ মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে  তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি'র সমালোচনা করে তিনি আরো বলেন, কোনো রাজনৈতিক দলের শেষ লক্ষটা থাকে রাষ্ট্র পরিচালনা করা এবং এর তিনটি উপায় আছে। একটা নির্বাচন, দ্বিতীয় অস্ত্রের মাধ্যমে রিভলিউশন, তা না হলে গণ আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে কুপোকাত করে ক্ষমতায় আসা। তারা (বিএনপি) এমন কোন দল নয় যে অস্ত্রের মাধ্যমে রিভলিউশন করে ক্ষমতায় আসবে। তাদের জন্য একমাত্র পথ হলো ব্যালট যুদ্ধে অংশগ্রহণ করা। কাজেই তাদের সেই সুযোগ হারানোটা উচিত নয়। গত বছর তারা এই ভুল করেছে, এবার একই ভুল বার করবে না। না হলে হওয়ায় মিশে যাবে। তাদের ভোট ব্যাংক হলো স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি।

নির্বাচনে ভারতের হস্তক্ষেপ নিয়ে মোজাম্মেল হক বলেন, "আমাদের বন্ধু রাষ্ট্র হিসাবে ভারত অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সহায়তা করতে পারে। কিন্তু রাজনৈতিক ক্ষেত্রে কিংবা সরকার পরিচালনার ক্ষেত্রে ভারতের ভূমিকা থাকাটা কাম্য নয়। এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। ভারত বাংলাদেশের বন্ধু, আওয়ামী লীগের বন্ধু নয়। বাংলাদেশে যে সরকার ক্ষমতায় আসবে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক থাকবে ভারতের। যেমন ইন্দিরা গান্ধী না থাকলেও মোদি সরকারের সাথে বাংলাদেশ সরকারের সম্পর্ক আছে।"

ড. কামাল হোসনের একটি মন্তব্যের বিষয়ে মোজাম্মেল হক বলেন,  "তার কাছে যুক্তি নেই তাই মাথা খারাপ হয়ে গেছে। দেশের জনগণই তাদের খামোশ করে দেবে।"


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

 


আপনার মন্তব্য