Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ মে, ২০১৯ ২২:১৮
আপডেট : ১৩ মে, ২০১৯ ২২:২৫

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনারের

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনারের

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস।

সোমবার বিকালে রাজ্যটির মহাকরণে দুই জনের মধ্যে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশের সাথে উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোর মধ্যে কানেক্টিভিটি, ব্যবসা-বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যেই এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে জানা গেছে। 

বৈঠক শেষে ভারতীয় হাইকমিশনার জানান, ‘আমরা বাণিজ্য এবং কানেক্টিভিটি সম্পর্কিত বিভিন্ন ইস্যু ও প্রজেক্ট নিয়ে আলোচনা করেছি। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্য ও যোগাযোগ বৃদ্ধিতে ত্রিপুরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে।’ 

বর্তমানে ত্রিপুরায় অবস্থিত দুইটি সীমান্ত হাট রয়েছে। এছাড়া এর সংখ্যা দ্বিগুণ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। সীমান্ত হাটে ভারত ও বাংলাদেশ উভয় দেশের বিক্রেতারাই কোনো রকম শুল্ক বা কর ছাড়া স্থানীয় পণ্য বিক্রির সুযোগ পাবেন। সীমান্তের উভয়পারের মানুষদের জীবন জীবিকার উন্নয়নেই ত্রিপুরা ও মেঘালয়ে সীমান্ত হাট নির্মাণ করা হয়েছে।

রিভা গাঙ্গুলী আরো জানান, ‘মানুষে মানুষে সংযোগ বৃদ্ধি নিয়েও আমাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে চলমান প্রকল্পগুলোর কাজ শেষ হতে আরো কিছুটা সময় লাগবে।’
 
অন্যদিকে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবও ট্যুইট করে বৈঠকের বিষয়টি জানান। তিনি লেখেন, ‘ত্রিপুরার সাথে সম্পর্কযুক্ত বিভিন্ন প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে এবং ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে সম্পর্ক আরো বৃদ্ধি করতে কী কী পদক্ষেপ নেওয়া দরকার তা নিয়েও আলোচনা হয়।’ 
 
দুই দিনের সফরে সোমবার সকালে ত্রিপুরায় আসেন রিভা। সকালেই নির্মাণাধীন আগরতলা-আখরউড়া রেল লাইন প্রকল্পের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করেন তিনি। ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেল পথের ৫ কিলোমিটার ভারতে বাকি ১০ কিলোমিটার রেল লাইন বসছে বাংলাদেশের অংশে। রেল প্রকল্পের পুরো খরচই বহন করছে ভারত সরকার। 

মঙ্গলবার সকালে রাজ্যপাল কাপ্তান সিং সোলাঙ্কির সাথেও সাক্ষাৎ করবেন তিনি। 


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য