শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৬

চিরনিদ্রায় শায়িত কবি আল মাহমুদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

চিরনিদ্রায় শায়িত কবি আল মাহমুদ
দাফনের আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গতকাল কবি আল মাহমুদের কফিনে শেষ শ্রদ্ধা জানান ভক্তরা -বাংলাদেশ প্রতিদিন

প্রিয়জনদের অশ্রু ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিজ জন্মস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বাংলা সাহিত্যের এ সময়ের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি আল মাহমুদ। গতকাল বাদ জোহর জেলা শহরের নিয়াজ মুহাম্মদ উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে তৃতীয় ও শেষ জানাজার পর দক্ষিণ মৌড়াইল কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান এ কবি ৮২ বছর বয়সে গত শুক্রবার রাত ১১টা ৫ মিনিটে রাজধানীর ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

গত শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় কবি আল মাহমুদের মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স শহরের মৌড়াইলে পৈতৃক নিবাসে এসে পৌঁছায়। এভাবে প্রাণহীন দেহে কবির বাড়ি ফেরা মেনে নিতে পারেননি কেউই। মরদেহ বাড়ির উঠানে রাখার পরই শুরু হয় কবির স্বজন ও শুভাকাক্সক্ষীদের শোকের আর্তনাদ। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নিয়াজ মুহাম্মদ উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে কবির মরহেদ নেওয়া হয়। সেখানে সর্বস্তরের মানুষ ফুল দিয়ে প্রিয় কবিকে শ্রদ্ধা নিবেদন করে শেষবারের মতো বিদায় জানান। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন, স্কুল-কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থীরাও প্রিয় কবিকে ফুলেল বিদায় জানান। জানাজার আগে কবির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য দেন গবেষক ও ভাষা সৈনিক মুহাম্মদ মুসা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব সভাপতি খ আ ম রশিদুল ইসলাম, কবির ছেলে মীর মাহমুদ মনির, কবির ভাগ্নে লে. কর্নেল (অব.) শাকিল, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক খোকন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান মঞ্জু, প্রভাষক মহিবুর রহিম, মনজুরুল আলম প্রমুখ। জানাজায় বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠনের নেতাসহ সমাজের সর্বস্তরের লোকজন অংশ নেন। জানাজা শেষে জেলা আইনজীবী সমিতি, জেলা বিএনপি, জেলা যুবদল, জেলা ছাত্রদল, জেলা উন্নয়ন পরিষদ, মৌড়াইল গ্রামবাসী, বিডি ক্লিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ইউনেস্কো ক্লাব ব্রাহ্মণবাড়িয়া, দৈনিক সমতট বার্তা পরিবারের পক্ষ থেকে কবির কফিনে পুষ্পস্তক অর্পণ করে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর