শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ জানুয়ারি, ২০২০ ২৩:২৬

আফতাবনগর থেকে ১৩ রোহিঙ্গা তরুণী উদ্ধার মিলল পাসপোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক

আফতাবনগর থেকে ১৩ রোহিঙ্গা তরুণী উদ্ধার মিলল পাসপোর্ট

রাজধানীর রামপুরার আফতাবনগর এলাকার একটি বাসা থেকে ১৩ জন রোহিঙ্গা তরুণীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। গ্রেফতার করেছে পাচারকারী চক্রের দুই সদস্য কবির আহমেদ (৪০) ও এমরানকে (২৮)। এরা রোহিঙ্গা তরুণীদের জন্য বাংলাদেশি পাসপোর্ট সংগ্রহ করে ভারত হয়ে মালয়েশিয়া পাচারের প্রক্রিয়া করছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল সকাল ১০টার দিকে আফতাবনগর দুই নম্বর সড়কের ৪০ নম্বর বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করে র‌্যাব-৩-এর একটি দল। উদ্ধার তরুণীদের বয়স ১৮ থেকে ২০-এর মধ্যে। র‌্যাব বলছে, এই চক্রটি রোহিঙ্গা সুন্দীর তরুণীদের লোভনীয় চাকরির কথা বলে ভারত হয়ে মালয়েশিয়া এবং দুবাইয়ে পাচার করে আসছে। গত সপ্তাহেও পাঁচজন এবং গত ডিসেম্বরে আটজন রোহিঙ্গা তরুণীকে ভারত হয়ে মালয়েশিয়ায় পাচার করেছেন তারা। এই চক্রের মূল হোতা সবুর নামে এক ব্যক্তি। তিনি নিজে রোহিঙ্গা হলেও বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে ১০ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন। দেশের বিভিন্ন এলাকায় তার এজেন্ট রয়েছে। তারা কেবল নারীদেরই টার্গেট করেন। তাদের বিদেশে পাচার করার পর জোরপূর্বক দেহব্যবসায় বাধ্য করেন তারা। নইলে চলে অমানুষিক নির্যাতন। র‌্যাব-২-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ বি এম ফাইজুল ইসলাম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেই আমরা বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছি। এদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও তথ্য আদায় করা সম্ভব হবে বলে আমরা মনে করছি।’ তিনি বলেন, এ চক্রের অন্য দুই সদস্য পলাতক হাবিব এবং গ্রেফতার এমরান পাসপোর্ট অফিসের অসাধু কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় বাংলাদেশি পাসপোর্ট তৈরি করে তাদের মালয়েশিয়া, দুবাইসহ কিছু দেশের ভিসা সংগ্রহ করে উচ্চমূল্যে আন্তর্জাতিক পাচারকারী চক্রের কাছে বিক্রি করে দিতেন। এ চক্রের বাকিদের গ্রেফতারের জন্য র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত আছে।


আপনার মন্তব্য