শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ মার্চ, ২০২১ ২৩:৩২

মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে চান ৪৩ শতাংশ ভোটার

জরিপে তথ্য

কলকাতা প্রতিনিধি

মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে চান ৪৩ শতাংশ ভোটার

সামনেই পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার নির্বাচন। কিন্তু নির্বাচনের আগেই  রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিরোধী দল বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক পড়েছে। তারপরও একুশের বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যটিতে মমতা ব্যানার্জির নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেসই ফের ক্ষমতায় আসতে চলেছে। এই তথ্য ওঠে এসেছে টাইমস নাও-সি ভোটার যৌথ জরিপে। আগামী ২৭ মার্চ থেকে মোট আট দফায় রাজ্যের ২৯৪টি আসনে ভোট গ্রহণ হবে। গণনা হবে আগামী ২ মে। রাজ্যে সরকার গড়তে দরকার ১৪৮টি আসন। এমন এক পরিস্থিতিতে সম্প্রতি একটি জরিপ চালানো হয়। সোমবার যে জরিপ প্রকাশ করা হয়, তাতে দেখা গেছে, তৃতীয়বারের জন্য সরকারে আসতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তারা পেতে পারে ১৪৬-১৬২টি আসন। যদিও ২০১১ সালের বিধানসভার নির্বাচনে প্রাপ্ত আসনের চেয়ে অনেকটাই কম। শেষবার রাজ্য বিধানসভার নির্বাচনে ২১১টি আসন পেয়েছিল তৃণমূল। শেষবার বিধানসভার নির্বাচনে বিজেপি পেয়েছিল মাত্র তিনটি আসন। কিন্তু তারপর থেকেই গত পাঁচ বছরে ধীরে ধীরে এ রাজ্যে গেরুয়া শিবিরের শক্তি বেড়েছে। তার প্রমাণ গত ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচন। রাজ্যের ৪২টি আসনের মধ্যে ১৮টি আসনে জয় পায় তারা এবং বামদের সরিয়ে প্রধান বিরোধী দল হিসেবে উঠে আসে বিজেপি। এবার তাদের ঝুলিতে যেতে পারে ৯৯ থেকে ১১৫টি আসন। অন্যদিকে ভালো লড়াই দিতে পারে কংগ্রেস-বামফ্রন্ট-ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট (আইএসএফ) জোটের প্রার্থীরাও। তারা ২৯-৩৭টি আসনে জয় পেতে পারে বলে জরিপে ওঠে এসেছে। যদিও ২০১৬ সালের বিধানসভার নির্বাচনে বাম-কংগ্রেস জোট পেয়েছিল ৭৪টি আসন, এর মধ্যে কংগ্রেস ৪৪টি এবং সিপিআইএম ২৬টি আসনে জয় পেয়েছিল। 

জরিপে আরও দেখা গেছে যে, প্রাপ্ত ভোট শতাংশের হিসাবেও তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে খুব একটা ফারাক নেই। ক্ষমতাসীন দল যেখানে ৪২.২ শতাংশ ভোট পেতে পারে বলে পূর্বাভাস মিলেছে, সেখানে বিজেপি পেতে পারে ৩৭.৫ ভোট- যা গত বিধানসভার নির্বাচনে প্রাপ্ত ভোটের নিরিখে ১০.২ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে বাম-কংগ্রেস জোট শতকরা ১৪.৮ শতাংশ ভোট পেতে পারে। অন্যদিকে এবিপি-সিএনএক্স যৌথ জরিপেও দেখা গেছে যে, ১৫৪-১৬৪ আসন পেয়ে তৃণমূল কংগ্রেসই ফের রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে চলেছে। যেখানে বিজেপি ১০২-১১২টি আসনে জয় পেতে পারে। বাম-কংগ্রেস জোট পেতে পারে ২২-৩০টি আসন, অন্যরা ১-৩টি আসনে জয় পেতে পারে। শতকরা ভোটের নিরিখে তৃণমূল পেতে পারে ৪১.৫৩ শতাংশ, বিজেপি পেতে পারে ৩৪ শতাংশ ভোট। এদিকে এবিপি-সিএনএক্স’এর যৌথ জরিপে প্রকাশ পেয়েছে রাজ্যের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকেই চায় অধিকাংশ মানুষ। জরিপে অংশ নেওয়া প্রায় শতকরা ৪৩ শতাংশ মানুষ মমতাকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় আর বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে ২৮ শতাংশ, বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারীকে ৮ শতাংশ, কংগ্রেস সংসদ সদস্য অধীররঞ্জন চৌধুরীকে ৫ শতাংশ এবং সিপিআইএম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তীকে ৪ শতাংশ মানুষ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায়।

এই বিভাগের আরও খবর