শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ আগস্ট, ২০২১ ২৩:২৩

বিলুপ্ত ছিটমহলে আধুনিকতার ছোঁয়া

মুক্তির ছয় বছর পূর্তি উদযাপন

প্রতিদিন ডেস্ক

বিলুপ্ত ছিটমহলে আধুনিকতার ছোঁয়া
Google News

মুক্তির ছয় বছর পূর্তি উদযাপন করা হলো শনিবার মধ্যরাতে। বিলুপ্ত ছিটমহলে এখন আধুনিকতার ছোঁয়া। ৬৮ বছরের বন্দী জীবনের অবসান হয় ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই মধ্যরাতে। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিনিময় হয় ছিটমহল। ঐতিহাসিক এ দিনটিতে ইন্দিরা-মুজিব চুক্তির আলোকে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে থাকা ভারতীয় ১১১টি ছিটমহল বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত হয়। বাংলাদেশি ভূখন্ডে যোগ হয় ১৭ হাজার ১৬০ দশমিক ৬৩ একর জমি। ৬৮ বছরের অবরুদ্ধ জীবন থেকে মুক্তি ঘটে লাখো মানুষের। বিলুপ্ত ছিটমহলের বাসিন্দাদের ঘরে এখন জ্বলছে বৈদ্যুতিক বাতি। গড়ে উঠেছে নতুন নতুন স্কুল-কলেজ, মাদরাসা। ভাঙা রাস্তা এখন পাকা সড়ক। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে গৃহহীনদের দেওয়া হয়েছে পাকা ঘর। সব মিলে পাল্টে গেছে পঞ্চগড় জেলার ৩৬টি বিলুপ্ত ছিটমহলের দৃশ্যপট। জেলার ৩৬টি ছিটমহলের প্রায় ২০ হাজার মানুষের জন্য সরকারি উদ্যোগে গত ছয় বছরে দেওয়া হয়েছে ঘরে ঘরে বিনামূল্যে বিদ্যুৎ সংযোগ। শিক্ষা বিস্তারে  তিনটি কলেজসহ ২২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করা হয়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিক, পুলিশ ফাঁড়ি ভূমিহীনদের জন্য গুচ্ছগ্রাম, মন্দির ও মসজিদ, মাদরাসা, কৃষি ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। মুক্তির ছয় বছর পূর্তি উপলক্ষে পঞ্চগড় সদর উপজেলার বিলুপ্ত ছিটমহল গারাতি (বর্তমানে রাজমহল) মফিজার রহমান ডিগ্রি কলেজ মাঠে শনিবার রাত ১২-০১ মিনিটে ছিটমহল বিনিময়ের ছয় বছর পূর্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বক্তারা এই দিবসটিকে জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষণার দাবি জানান। পঞ্চগড়-নীলফামারী জেলা বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটি বাংলাদেশ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এই কমিটির গত ছয় বছর ধরে বর্ণাঢ্য উৎসবের আয়োজন করে দিবসটি পালন করে আসছে। তবে এবার করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি ও সমাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত পরিসরে উৎসবটি আয়োজন করা হয়। 

এদিকে করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প পরিসরে ছিটমহল বিনিময়ের ছয় বছর পূর্তি উদযাপন করেছেন লালমনিরহাট ছিটমহলবাসীরা।

বাংলাদেশে থাকা ভারতের সাবেক ১১১টি ছিটমহলে  ঐতিহাসিক দিনটি ঘিরে সাবেক ছিটমহলে ছিল নানা আয়োজন। বিলুপ্ত ভিতরকুটি ও পাটগ্রামের বাঁশখালী ছিটমহলে আলোচনা সভা-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি ৩১ জুলাই দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে ৬৮টি মোমবাতি জ্বালিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য দিয়েছেন সাবেক ছিটমহল আন্দোলনের নেতারা। তৎকালীন ছিটমহল বিনিময় আন্দোলন কমিটির আয়োজনে সমন্বয় পাড়া উচ্চবিদ্যালয় মাঠে ৩১ জুলাই রাত ১২টা ১ মিনিটে ৬৮টি মোমবাতি জ্বালিয়ে ও কেক কেটে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই মধ্যরাতে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে মুজিব-ইন্দিরা স্থল সীমান্ত চুক্তির বাস্তবায়ন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিন বাংলাদেশের ভিতরে ১১১টি ছিটমহল ও ভারতের ভিতরে বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহল দুই দেশের মূল ভূখন্ডে যুক্ত হয়। সেখানকার বাসিন্দারা নিজেদের পছন্দ মতো বাংলাদেশ বা ভারতের নাগরিক হওয়ার সুযোগ পান। এ ছাড়া কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীর দাসিয়ার ছড়ায় ষষ্ঠ বছর পূর্তি উদযাপিত হয়েছে। লকডাউনের কারণে দেশের সর্ববৃহৎ বিলুপ্ত ছিটমহল কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার দাসিয়ার ছড়ায় সরকারিভাবে কোনো কর্মসূচি না থাকলেও এখানে বসবাসরত বাসিন্দারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে যথাযোগ্য মর্যাদায় ছয় বছর পূর্তি উৎসব পালন করেছেন।