শিরোনাম
প্রকাশ : ১ আগস্ট, ২০২১ ১২:৩৫
আপডেট : ১ আগস্ট, ২০২১ ১৪:৪৬
প্রিন্ট করুন printer

দেশের অগ্রযাত্রা থামিয়ে দিতেই জাতির জনককে হত্যা, ইন্ধন ছিল জিয়া ও মোশতাকের : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

দেশের অগ্রযাত্রা থামিয়ে দিতেই জাতির জনককে হত্যা, ইন্ধন ছিল জিয়া ও মোশতাকের : প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
Google News

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের অগ্রযাত্রা থামিয়ে দিতেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়। এতে ইন্ধন ছিল জিয়াউর রহমান ও মোশতাকের।

রবিবার কৃষক লীগের আয়োজনে ‘স্বেচ্ছায় রক্ত ও প্লাজমা দান কর্মসূচি’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘরের সামনে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের আমরা বিচারের আওতায় এনেছি। তবে এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে ষড়যন্ত্রকারীদের উদঘাটন করা হয়নি। একদিন এটিও আবিষ্কার হবে।

তিনি বলেন, এ মাসের ১৫ তারিখে জাতির পিতাকে হত্যা করা হয়। সঙ্গে সঙ্গে আমার মা, যিনি সারাজীবন বঙ্গবন্ধুর পাশে ছিলেন। শুধু সংসার চালাননি পর্দার অন্তরালে থেকে তিনি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডও পরিচালনা করেছিলেন আমাদের স্বাধীনতার জন্য। তাকেও হত্যা করা হয়। খুনি ফারুক-রশিদ বিবিসিতে যে ইন্টারভিউ দিয়েছে তাতে বলেছে, জিয়াউর রহমান উপ-সামরিক প্রধান ছিল, তার সঙ্গে তাদের যোগাযোগ ছিল, সম্পর্কও ছিল; সফল হতে পারলে তাদের সমর্থন দেবে, সঙ্গে থাকবে। মোশতাক-জিয়ার যে সখ্যতা ও সম্পর্ক এটা তো পরিষ্কার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৫ আগস্টে জাতির পিতাকে হত্যার পর স্বাধীনতাবিরোধী, তারাই কিন্তু ক্ষমতাটা দখল করে। জিয়া এই খুনিদের পুনর্বাসনে সহযোগিতা করেছে। তারই পথ ধরে জেনারেল এরশাদও এই খুনিদের রাজনীতি করার অধিকার দিয়েছে।

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর