৮ নভেম্বর, ২০২১ ১২:১৯

নিউইয়র্কে বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সেমিনার

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি

নিউইয়র্কে বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সেমিনার

মূল বক্তব্য উপস্থাপন করছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন হাবীব (ডান থেকে তৃতীয়)। পাশে সেমিনারের প্যানেলিস্টগণ। ছবি-বাংলাদেশ প্রতিদিন।

নিউইয়র্কে ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর: বাংলাদেশের সংগ্রাম, সাফল্য ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৬ নভেম্বর শনিবার সেমিনারে একাত্তরের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্যে জাতিসংঘের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়ে পাকিস্তানী হায়েনাদের বিচারের দাবিও জানানো হয়। 

সেমিনারে অভিমত পোষণ করা হয়, ৫০ বছরের বাংলাদেশকে অনেক মর্মান্তিক ও হৃদয় বিদারক ঘটনাবলির পথ-পরিক্রমা পাড়ি দিয়ে সমৃদ্ধির ক্ষেত্রে অনন্য এক ইতিহাসের পথে ধাবিত হয়েছে। মানুষের জীবন-মানের উন্নয়নের ক্ষেত্রে পাকিস্তানকেই শুধু ছাড়িয়ে যায়নি ক্ষেত্র বিশেষে দক্ষিণ এশিয়ার সকল দেশকেই ছাড়িয়ে গেছে। সম্ভাবনাগুলোকে হান্ড্রেড পার্সেন্ট বাস্তবায়িত করতে রাজনৈতিক স্থিতির পাশাপাশি জনগণের মধ্যে সৃষ্ট এগিয়ে চলার প্রবল আকাঙ্খাকে জাগ্রত রাখার বিকল্প নেই। এজন্যে দরকার সামাজিক-রাজনৈতিক-ধর্মীয় সম্প্রীতির ঐতিহাসিক ঐতিহ্যকে সকলের লালন করার। ‘জ্ঞানভিত্তিক সমাজ’ গঠনে মনোনিবেশ করারও গুরুত্ব অপরিসীম।

সেমিনারের আয়োজন করেছিল সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম-মুক্তিযুদ্ধ’৭১ এর যুক্তরাষ্ট্র শাখা। সেমিনারের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ফোরামের কেন্দ্রীয় মহাসচিব খ্যাতনামা সাংবাদিক-লেখক-চিন্তাবিদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন হাবীব। হোস্ট সংগঠনের প্রেসিডেন্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ আহমেদের সভাপতিত্বে সেমিনারের প্যানেলিস্ট ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পানি বিশেষজ্ঞ ড. সুফিয়ান এ খন্দকার, জাতিসংঘ পপুলেশন কাউন্সিলের সিনিয়র গবেষক ড. সাজেদা আমিন, প্রখ্যাত মানবাধিকার সংগঠক ও আন্তর্জাতিক রাজনীতির বিশ্লেষক ড.পার্থ ব্যানার্জি, আই গ্লোবাল ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলর এবং পিপল এন টেকের সিইও ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিফ, খ্যাতনামা অর্থনীতিবিদ ও আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক মাহফুজ আর চৌধুরী এবং মুক্তমনা প্রগতিশীল চিন্তা-চেতনার লেখক ফকির ইলিয়াস। 

সাংবাদিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা লাবলু আনসারের সঞ্চালনায় শুরুতে সমবেত কণ্ঠে দেশের গান পরিবেশন করেন বহ্নিশিখা সঙ্গীত নিকেতনের শিল্পীরা। নেতৃত্বে ছিলেন আয়োজক সংগঠনের মহিলা সম্পাদক সবিতা দাস এবং সাংস্কৃতিক সম্পাদক উইলি নন্দি। এরপর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদ, গত ৫০ বছরে গণতান্ত্রিক আন্দোলন এবং মানবতার স্বার্থে আত্মত্যাগকারী সকলের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়। প্যানেলিস্টগণকে আসন গ্রহণের প্রাক্কালে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার সেক্রেটারি আব্দুল কাদের মিয়ার পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। এ পর্বের সমন্বয় ঘটিয়েছেন ফোরামের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশার চুন্নু, কোষাধ্যক্ষ বিশ্ববাংলা টেলিভিশনের সিইও আলিম খান আকাশ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সম্পাদক আশরাব আলী খান লিটন এবং অন্যতম সহ-সভাপতি আবুল বাশার ভূইয়া। সাথে ছিল ছুট্টমনি প্রিনা নন্দি।

সেমিনারের সমাপ্তি ঘটে একুশের পদকপ্রাপ্ত খ্যাতনামা কণ্ঠযোদ্ধা রথীন্দ্র নাথ রায়, শহীদ হাসান এবং প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পী শাহ মাহবুবের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি জাগানিয়া গানে। তবলায় সঙ্গত করেছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাদক তপন মোদক। একাত্তরের বীরাঙ্গনাদের নিয়ে নিজের লেখা গান গেয়ে সকলকে অভিভূত করেন কবি সালেহা ইসলাম। 

প্যানেলিস্টগণের আলোচনার ভিত্তিতে ফ্লোর থেকে বাংলাদেশ লিবারেশন ওয়্যার ভেটার্ন্স, ইউএসএর ভাইস প্রেসিডেন্ট মকবুল হোসেন তালুকদার এবং আমেরিকা-বাংলাদেশ এলায়েন্সের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম এ সালাম নিজ নিজ মতামত ব্যক্ত করেছেন। 

সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সেক্রেটারি বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল বারি সকলের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জানান সেমিনারকে সর্বাত্মকভাবে সফল করার জন্যে। এ সময় বীর মুক্তিযোদ্ধাগণের মধ্যে আরো ছিলেন মেজর (অব:) মঞ্জুর আহমেদ বীর প্রতিক, শাহজাহান মৃধা বেনু, গোলাম মোস্তফা খান মিরাজ, এনামুল হক, আব্দুর রহমান, মোহাম্মদ সানাউল্লাহ, মঞ্জুর আহমেদ, নাজিমউদ্দিন, এম এ আওয়াল, কাজী মনির, শামসুল আলম চৌধুরী, আবুল বাশার ভ’ইয়া এবং বিলালউদ্দিন, হোস্ট সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল কাদের মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ফোরামের আহবায়ক আশরাব আলী খান লিটন, ফোরামের নির্বাহী সদস্য মাস্টার ইলিয়াস খান, যুব বিষয়ক সম্পাদক তানভির হাবীব শুভ, মেহনাজ তাবাসসুম দ্যুতি ও আহসান সিফাত প্রমুখ। ছিলেন লং আইল্যান্ডের একটি আসন থেকে সামনের নির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী ড. মুজিবুল হক এবং মিসেস হক, সচেতন সমাজকর্মী ড. মুক্তি ব্যানার্জি,  বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি প্রার্থী জয়নাল আবেদীন, বাসদ ফোরামের যুক্তরাষ্ট্র শাখার নেতা জামান তপন, নিউইয়র্ক ট্যাক্সি ওয়ার্কার্স এলায়েন্সের অর্গানাইজার টিপু সুলতান প্রমুখ।  

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর