শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১৬

ফিলিপাইনের জালে ১০ গোল বাংলাদেশের

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ফিলিপাইনের জালে ১০ গোল বাংলাদেশের
জয়ের তিন কন্যা তহুরা খাতুন, শামসুন্নাহার জুনিয়র ও অনুচিং। ফিলিপাইনের বিপক্ষে তারাই বড় জয়ের পেছনে মূল ভূমিকা রাখেন -বাফুফে

ম্যাচ নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিল মারিয়া, আঁখিরা। প্রতিপক্ষ ফিলিপাইন একেবারে অচেনা প্রতিপক্ষ। কখনো খেলা হয়নি তাদের সঙ্গে। মেয়েদের ফুটবলে তাদের মান কেমন তাও জানা ছিল না মারিয়াদের। তবে মাঠে নামার আগে কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেছিলেন শুরুটা জয় দিয়ে করতে চাই। কথা রেখেছেন মারিয়ারা। এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের মেয়েরা শুভ সূচনা করেছে।

গতকাল মিয়ানমারে অনুষ্ঠিত গ্রুপের প্রথম ম্যাচে ১০-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ফিলিপাইনকে। ‘বি’ গ্রুপের বাংলাদেশের অপর দুই প্রতিপক্ষ মিয়ানমার ও চীন। দুটোই শক্তিশালী দল। ফিলিপাইন সেই মানের দল না হলেও অচেনা প্রতিপক্ষকে নিয়ে বাংলাদেশের ভয়ে ছিল। জয় প্রত্যাশা করা যেতে পারে। কিন্তু শুরুতেই ফিলিপাইনকে এমনভাবে বিধ্বস্ত করবে মারিয়ারাও ভাবেননি। তাইতো ম্যাচ শেষে জয়ের নায়ক তহুরা খাতুন বললেন, এত গোল ভাবতেই পারিনি।

ফুটবলে পুরুষ জাতীয় দল যেখানে গোল খরায় ভুগছে সেখানে বাংলাদেশের কিশোরীরা যে কোনো টুর্নামেন্ট গোল উৎসবে মাতছে। কিছুদিন আগে অনূর্ধ্ব-১৫ সাফে ১৪ ও অনূর্ধ্ব-১৭ টুর্নামেন্ট ১৬ গোলে পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়েছিল। ভাবা যায় মাত্র সেদিন যে মেয়েদের আন্তর্জাতিক ফুটবলে যাত্রা তারাই গোল সংখ্যায় ১০০ ছাড়িয়ে গেছে অনেক আগেই। পাকিস্তান বা মালদ্বীপকে না হয় গোলে ভাসানো যায়, তাই বলে ফিলিপাইনকে। এ ফিলিপাইন কয়েক বছর আগে ঢাকায় প্রীতিম্যাচে খেলে গেছে। বাংলাদেশ জাতীয় দলকে হারিয়ে যায় তারা। পুরুষ ফুটবলে রুগ্ন দশা হলেও মেয়েদের ব্যাপারে ক্রীড়ামোদীরা সব সময় আশাবাদী। তবু অচেনা প্রতিপক্ষ ফিলিপাইনকে গোল বন্যায় ভাসানো তো দূরের কথা জিততে পারবে কিনা এ নিয়েও অনেকে শঙ্কিত ছিলেন। মারিয়ারা পুরুষদের হারের প্রতিশোধই শুধু নেয়নি ১০ গোল দিয়ে বুঝিয়ে দিল নারী ফুটবলে বাংলাদেশের অগ্রগতি।

প্রথমার্ধে ৬ গোল দিয়েই বাংলাদেশ বিজয় নিশ্চিত করে ফেলে। দ্বিতীয়ার্ধে আরও ৪ গোল। তবু আক্ষেপ মারিয়াদের আরও ১টি গোল হলে প্রতিপক্ষের ১১ জনকে ১টি করে গোল উপহার দেওয়া যেত। আসলে ব্যবধানটা আরও বড় হতে পারত। সুযোগ হাতছাড়া করায় তা আর হয়নি।

রেফারি বাঁশি বাজার ২ মিনিটের মধ্যেই এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেন স্ট্রাইকার তহুরা খাতুন। দুটি করে গোল করেছেন সামসুন্নাহার জুনিয়র ও অনুচিং। সামসুন্নাহার সিনিয়র, নীলা ও অধিনায়ক মারিয়া মা া ১টি করে গোল করেন। উল্লেখ্য, গত সেপ্টেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত বাছাই পর্বের প্রথম রাউন্ডে বাহরাইন, লেবানন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ভিয়েতনামকে হারিয়ে মিয়ানমারে খেলার টিকিট পেয়েছে বাংলাদেশ।


আপনার মন্তব্য