শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৭

শ্রীলঙ্কাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা !

ক্রীড়া ডেস্ক

শ্রীলঙ্কাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা !

২০০৯ সালের লাহোরের সেই সন্ত্রাসী হামলা দুঃস্বপ্ন হয়ে এখনো তাড়িয়ে বেড়ায় শ্রীলঙ্কাকে। ক্রিকেট বিশ্বে সবচেয়ে ন্যক্কারজনক ঘটনা এটি। এরপর পাকিস্তান সফর থেকে বিরত থাকে টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলো। ওই ঘটনার ১০ বছর পর ‘দ্বীপরাষ্ট্র’ শ্রীলঙ্কা ফের পাকিস্তান সফর করবে। দুই দলের খেলার সূচি চূড়ান্ত। ২৭ সেপ্টেম্বর শুরু হবে সিরিজ। খেলা মাঠে গড়ানোর আগেই ফের সংকটের মুখে পড়েছে দুই দেশের সিরিজটি। সফর করতে অনীহা প্রকাশ করেছে ১০ লঙ্কান ক্রিকেটার। তার ওপর ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা জানাচ্ছে, তাদের ক্রিকেটাদের ওপর আবার আক্রমণের হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড আবার পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করার কথা বলেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে একটি বিবৃতিও দিয়েছে লঙ্কান বোর্ড। সন্ত্রাসী হামলার হুমকির পর সিরিজটি শেষ মুহূর্তে বাতিল হতে পারে। এ নিয়ে ভাবছে না পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। দ্বীপরাষ্ট্রকে সর্বোচ্চ নিরপত্তা দেওয়ার অঙ্গীকার করেছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। পিসিবি বলছে, ‘আমরা শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের বিবৃতি দেখেছি। শ্রীলঙ্কা দলের নিরাপত্তার বিষয়ে কোনো ধরনের তথ্য বা গোয়েন্দা রিপোর্ট নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছি না। আমরা পূর্ণ নিরাপত্তার আশ্বাস দিচ্ছি। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেব’। এর আগে ৯ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেন ল্যাথিস মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, থিসারা পেরেরা, দিনেশ চান্ডিমাল, সুরাঙ্গা লাকমল, দিমুথ করুণারতেœ, আকিলা ধনঞ্জয়া, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, কুশল পেরেরা ও নিরোশান ডিকভেলা। উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের বাসে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছিল। তাতে ৮ জন নিহত হয়েছিল। তবে বাস ড্রাইভারের বৃদ্ধির কারণে বেঁচে গিয়েছিলেন লঙ্কান ক্রিকেটাররা। 


আপনার মন্তব্য