শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১২ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ মার্চ, ২০২১ ২৩:২৯

স্পিনাররাই বড় ফ্যাক্টর

ক্রীড়া প্রতিবেদক

স্পিনাররাই বড় ফ্যাক্টর

সবুজ ঘাসের উইকেট। একই সঙ্গে হার্ড ও বাউন্সি এবং বাতাস থাকায় সুইংও হয় খুব। নিউজিল্যান্ডর উইকেটগুলোতে আচরণ এমন হওয়ায় একটু বেশিই সুবিধা পেয়ে থাকেন পেসাররা। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড সিরিজে পেসারদের তুলনায় স্পিনাররাই সুবিধা আদায় করে নিয়েছেন উইকেট থেকে। আইএস সোধি, মিচেল সান্তানার, অ্যাস্টন অ্যাগার, অ্যাডাম জাম্পাদের ঘূর্ণিতে সাবলীল ছিলেন না দুই দলের ব্যাটসম্যানরা।

বাংলাদেশের স্পিন কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টরি খেলাগুলো বিশ্লেষণ করে দেখেছেন বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজে দুই দলের স্পিনাররা বিগ রোল প্লে করবে। গতকাল মিডিয়ার মুখোমুখিতে টাইগার ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের প্রশংসা করার ফাঁকে এটাও বলেছেন স্পিন আসন্ন সিরিজে বড় ভূমিকা রাখবে, ‘আমার মনে হয় স্পিনাররা সিরিজে বড় ভূমিকা রাখবে। এটা সত্যি যে, সাদা বলের ক্রিকেটে স্পিন অনেক বড় ফ্যাক্টর।’ শুধু তাই নয়, নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক টাইগারদের সাফল্যের বিষয়ে একটি সম্ভাবনাও দেখছেন। 

২০১৯ সালের জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ দলের সঙ্গে কাজ করেছিলেন ভেট্টরি। করোনাভাইরাসের জন্য ফিরে যান দেশে। গত এক বছরে দলের সঙ্গে কাজ করেননি। যদিও গত অক্টোবরে টাইগারদের সঙ্গে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা ছিল তার। সিরিজটি শেষ মুহূর্তে স্থগিত হওয়ায় যাওয়া হয়নি তার। এবার এক বছর পর টাইগারদের সঙ্গে যোগ দিলেন কিউই স্পিন কোচ।

টাইগাররা এখন অনিন্দ্য সুন্দর শহর কুইন্সটাউনে তাঁবু গেড়েছে। সেখানে পাঁচ দিন ক্যাম্প করবেন। ২০ মার্চ ডানেডিনে প্রথম ওয়ানডেতে নামার আগে তামিমরা একটি প্রস্তুতি ম্যাচও খেলবেন কুইন্সটাউনে। গতকাল ছিল ক্রিকেটারদের ছুটি। তামিম, মুশফিকরা দিনটি উপভোগ করেছেন। ভিডিওতে দেখা গেছে, সমুদ্র পাড়ে মুশফিক হাঁসদের খাবার খাওয়াচ্ছেন বেশ আনন্দ নিয়ে।

ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-২০ সিরিজ জিতেছে নিউজিল্যান্ড। স্বাগতিকদের সিরিজ জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন দুই স্পিনার সোধি ও সান্তানার। অবশ্য দুই অসি স্পিনার অ্যাগার ও জাম্পাও বেশ ভুগিয়েছেন স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের। স্পিনাররা যে সুবিধা পাবেন সেটা স্পষ্ট করে বলেছেন ভেট্টরি, ‘স্পিনাররা ভূমিকা রাখবে সিরিজে। সদ্য শেষ হওয়া সিরিজে খেয়াল করলেই দেখা যায়, সান্তানার ও সোধি সাফল্য পেয়েছেন। অ্যাগার ও জাম্পাও ভালো করেছেন।

মেহেদী হাসান মিরাজ অনেক অভিজ্ঞ স্পিনার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দারুণ পারফরম্যান্স করেছেন। আমার মনে হয়, এবারের সিরিজে মিরাজ একটি ভূমিকা রাখবে। এছাড়া মেহেদী হাসান ও নাসুম আহমেদও দারুণ ভূমিকা রাখবে বলে বিশ্বাস করি।’

২৪ ফেব্রুয়ারি তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-২০ সিরিজ খেলতে তামিম, মাহমুদুল্লাহরা নিউজিল্যান্ডে। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে টাইগাররা এখন কুইন্সটাউনে। ২০ মার্চ শুরু ওয়ানডে সিরিজে নেতৃত্ব দিবেন তামিম। ভেট্টরি ভুয়সী প্রশংসা করেছেন টাইগার ওয়ানডে অধিনায়কের, ‘বাংলাদেশের সৌভাগ্য, এই সিরিজে তামিমকে অধিনায়ক হিসেবে নিয়ে আসতে পারায়। সে খুবই খোলা মনের মানুষ। এর আগে নিউজিল্যান্ড সফর করে চ্যালেঞ্জগুলো নিয়েছে। সে বোঝে, কোন ব্যাপারগুলো কাজ করেনি, কোনো ব্যাপারগুলো এখানে কাজ করবে। আমাদের শুরু করার জন্য এটি খুব ভালো একটি দিক।’ 

বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডে মাটিতে কখনোই সাফল্য পায়নি। দেশ ছাড়ার আগে তামিমও ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে সাফল্য দেখবেন বলে স্বপ্ন দেখিয়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীদের। ভেট্টরির কন্ঠেও বেজেছে তামিমের কণ্ঠ, ‘আমার মনে হয়, বাংলাদেশ এই সিরিজে কিছু জিনিস চেষ্টা করবে। আমরা জানি নিউজিল্যান্ড দারুণ একটি দল। ইদানীংকালে তারা খুব ভালো খেলছে। আশা করি, আমরা পূর্বের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিতে পেরেছি। তাই ভালো কিছুর আশা করতেই পারি।’ ওয়ানডে সিরিজ শুরু ২০ মার্চ। টি-২০ সিরিজ শুরু ২৮ মার্চ। টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ও টি-২০ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।


আপনার মন্তব্য