শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:১১
প্রিন্ট করুন printer

আন্দোলনের মুখে পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত বদল

স্থগিত হওয়া ৭ কলেজের পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

স্থগিত হওয়া ৭ কলেজের পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ
সংগৃহীত ছবি

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে অধিভুক্ত সাত কলেজের স্থগিত হওয়া পরীক্ষাগুলো অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) কলেজগুলোর অধ্যক্ষ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামানে সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির ভার্চুয়াল বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এমন সিদ্ধান্তে উল্লাস প্রকাশ করে আন্দোলন প্রত্যাহার করে নিয়েছে সাত কলেজের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। 

এর আগে, মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য(শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল  ও কলেজগুলোর অধ্যক্ষদের এক সভা থেকে পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা আসে। এর প্রতিবাদে ওই দিন সন্ধ্যা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত নীলক্ষেত-নিউমার্কেট মোড় অবরোধের পর বুধবার সকাল নয়টা থেকে একই স্থানে আবারও অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। এসময় মোড়ের চারদিকের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তীব্র যানজটে ভোগান্তিতে পড়ে রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী মানুষ।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের চারটি এবং শেষ বর্ষের একটি পরীক্ষা বাকি আছে। এমন এসময়ই স্থগিতের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে, যা একেবারেই অযৌক্তিক। এসময় তারা স্থগিতাদেশ তুলে নিয়ে পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে। দিনভর শিক্ষার্থীদের থেকে কিছুটা দূরে সতর্ক অবস্থানে ছিলো পুলিশ। 

এদিকে, দুপুর বারোটার পর আন্দোলনকারীদের একাংশ সায়েন্স ল্যাব মোড়ে গিয়ে অবস্থান নিলে সেখানেও যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এসময় শিক্ষার্থী-পুলিশ মুখোমুখি অবস্থানে চলে যায়। এমনকি তাদের সরিয়ে দিতে জলকামানও নিয়ে আসে পুলিশ। তবে কোনো সংঘর্ষ ছাড়াই জলকামানের সামনে অবস্থান করতে থাকে শিক্ষার্থীরা। 

পরে বিকেল চারটার দিকে চলমান পরীক্ষা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে সাত কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম তদারকির দায়িতপ্রাপ্ত (ফোকাল পয়েন্ট) ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার জানান, সাত কলেজের চলমান পরীক্ষাগুলো নেওয়া হবে। তবে এ সময় আবাসিক ছাত্রাবাস খোলা হবে না।

এমন সিদ্ধান্তে উল্লাস প্রকাশ করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। ঘোষণার পরপর অবরোধ তুলে নিয়ে রাস্তা ছেড়ে দেন তারা। কিছুক্ষণের মধ্যে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে যায়। 

স্থগিত পরীক্ষাগুলোর রুটিন প্রকাশ- এদিকে, স্থগিত হওয়া সাত কলেজের পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. বাহালুল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এই রুটিন প্রকাশ করা হয়। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী,  ২০১৯ সালের অনার্স তৃতীয় বর্ষের স্থগিতকৃত পরীক্ষাগুলো আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি  এবং ৩, ৬, ৯ ও ১৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। অন্যদিকে, ২০১৯ সালের অনার্স চতুর্থ বর্ষের স্থগিতকৃত পরীক্ষা আগামী ২৭ ফেব্য়ারুরি এবং  ২, ৪ ও ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। 

হল খোলার দাবি ঢাবি শিক্ষার্থীদের- হল খোলার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজু ভাষ্কর্যের সামনে ‘শিক্ষার্থীবৃন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে’র ব্যানারে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। 

সমাবেশে ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি মেঘমল্লার বসু বলেন, এই করোনার মধ্যে মেট্রোরেলের কাজ চলছে, সরকারের প্রচলিত দুর্নীতি চলছে, তাহলে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো খুলতে সমস্যা কোথায়? করোনার মধ্যে প্রশাসন বললো, তারা ডিভাইস কেনার জন্য ঋণ দেবে? বিশ্ববদ্যালয় কি মহাজন যে তারা ঋণ দেবে? যদি তারা মহাজন হয়েই থাকেন, তাহলে সুদের ব্যবসা শুরু করেন। 

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ছাত্রফ্রন্টের ঢাবি শাখার সভাপতি সালমান সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক প্রগতি তমা, ছাত্র ইউনিয়নের ঢাবি সভাপতি সাখাওয়াত ফাহাদ প্রমুখ। 


 
বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর