শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল, ২০২১ ১৩:৫৩
আপডেট : ১৩ এপ্রিল, ২০২১ ১৪:১৪
প্রিন্ট করুন printer

যাদুকাটা বালু মহাল খুলে দেওয়ার দাবি শ্রমিকদের

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

যাদুকাটা বালু মহাল খুলে দেওয়ার দাবি শ্রমিকদের

মামলা-মোকদ্দমা ও প্রশাসনিক জটিলতায় দুই বছর ধরে বন্ধ থাকা সুনামগঞ্জ জেলার বৃহৎ কর্মস্থল যাদুকাটা বালু মহাল খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন বেকার বারকি শ্রমিক ও ব্যবসায়ীরা। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের গড়কাটি এলাকায় যাদুকাটা বালু ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি ও যাদুকাটা শ্রমিক সমবায় সমিতির যৌথ উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, তাহিরপুর অঞ্চলের লক্ষাধিক মানুষ বংশ পরম্পরায় যাদুকাটা নদী থেকে বালু আহরণের পর বিক্রি করে জীবন-জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। করোনাকালীন এই দুর্দিনে মামলা-মোকদ্দমা ও প্রশাসনিক জটিলতার কারণে প্রায় দুই বছর ধরে নদীতে বালু উত্তোলন বন্ধ রয়েছে।

বৃহৎ এই কর্মক্ষেত্রটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বেকার হয়ে পড়া হাজার হাজার শ্রমিক ও ব্যবসায়ীরা মানবেতর জীবনযাবন করছেন। উপার্জন বিকল্প পথ না থাকায় পরিবার-পরিজন নিয়ে বহু কষ্টে দিনাতিপাত করছেন তারা। পরিবারের ভরণপোষণ ও  সন্তানদের লেখাপড়া চালানো দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে তাদের।

বক্তাদের অভিযোগ, একটি স্বার্থানেস্বী মহল সরকারকে রাজস্ব না দিয়ে যাদুকাটা নদী থেকে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করার দীর্ঘমেয়াদী ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে  মামলা-মোকদ্দমার বেড়াজাল ও প্রশাসনিক জটিলতা সৃষ্টি করে মহালটি বন্ধ রেখে ফায়দা হাসিল করছে। কিন্তু করোনাকালীন এই দুর্দিনে কংর্মসংস্থান না থাকায় স্থানীয় শ্রমিক ও ব্যবসায়ীরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।

সাধারণ শ্রমিক ও ব্যবসায়ীদের জীবন বাঁচাতে যাদুকাটা বালু মহাল খুলে দেওয়ার ক্ষেত্রে সবধরনের প্রতিবন্ধকতা দূর করতে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর প্রতি আহ্বান জানান শ্রমিক ও ব্যবসায়ীরা।

মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন তাহিরপুর যাদুকাটা বালু ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুস শাহিদ, যাদুকাটা শ্রমিক সমবায় সমিতির সভাপতি সাহেদ মিয়া, ইউপি সদস্য রেনু মিয়া, বালু-পাথর ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেন, শ্রমিক নেতা হাকিকুল মিয়া, মোতালেব মিয়া, রহিছ মিয়া, জাহাঙ্গীর মিয়া, খয়রাত হোসেন, কামাল হোসেন প্রমুখ।


বিডি প্রতিদিন/ফারজানা