৬ নভেম্বর, ২০২১ ২২:২৭

কানাইঘাট সীমান্তে নিহত দুই বাংলাদেশির মাথায় গুলির চিহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট

কানাইঘাট সীমান্তে নিহত দুই বাংলাদেশির মাথায় গুলির চিহ্ন

প্রতীকী ছবি

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার ভারতীয় সীমান্তে তিনদিন পড়ে থাকার পর নিহত দুই বাংলাদেশির লাশ এখন ওসমানী মেডিকেল কলেজের মর্গে।

গতকাল শুক্রবার ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) দুটি লাশ উদ্ধার করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ'র (বিজিবি) কাছে হস্তান্তর করে। লাশ দুটিতে গুলির চিহ্ন পাওয়া গেছে। 

বিজিবি লাশ উদ্ধার করে পুলিশে হস্তান্তরের পর কানাইঘাট থানা-পুলিশের লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

কানাইঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম জানান, সুরতহাল প্রতিবেদনে দুজনের শরীরে গুলির চিহ্ন আছে। একজনের মাথা ও অন্যজনের কপালে গুলি ভেদ করে বের হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর আর কোথাও কোনো গুলি আছে কি না তা বলা যাবে। শুক্রবার রাতে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, গত বুধবার সকালে সিলেটের কানাইঘাটের ডোনা সীমান্ত এলাকার নোম্যান্স ল্যান্ডের ভারতীয় অংশে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় কানাইঘাট উপজেলার এড়ালিগুল গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে আসকর আলী ও একই গ্রামের আব্দুল হান্নানের পুত্র আরিফ হোসেনের পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। এরপর বিষয়টি বিজিবি ও পুলিশকে অবগত করা হয়। 

এ ঘটনার পর বৃহস্পতিবার বিজিবি ও বিএসএফ পতাকা বৈঠক করলেও দু'জনের মৃত্যুর কারণ নিয়ে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী ঐক্যমতে পৌঁছাতে না পারায় ওইদিন লাশ উদ্ধার হয়নি। পরে গতকাল শুক্রবার বিকেল ৪টায় বিজিবি-বিএসএফ ফের পতাকা বৈঠক করে। ওই বৈঠকের পর ওইদিন বিএসএফ লাশ দুটি উদ্ধার করে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করে। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

সর্বশেষ খবর