শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ জানুয়ারি, ২০২০ ২০:৪৯
আপডেট : ১৩ জানুয়ারি, ২০২০ ২১:১২

বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা

চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচন : ৪৭ বছর পর আওয়ামী লীগের এমপি

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচন : ৪৭ বছর পর আওয়ামী লীগের এমপি
মোছলেম উদ্দিন আহমেদ

চট্টগ্রাম-৮ (চান্দঁগাও-বোয়ালখালী) আসনের উপনির্বাচনে দীর্ঘ ৪৭ বছর পরেই আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী মোছলেম উদ্দিন আহমেদ সংসদ সদস্য হয়েছেন। এই আসনে প্রথমবারের মতো ইভিএম ভোট ও আওয়ামী লীগের প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। এর আগে ১৯৭৩ সালের ৭ মার্চ বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় সংসদ চট্টগ্রাম-৮ আসনের নির্বাচনে (তৎকালীন চট্টগ্রাম-৭ আসন) এমএ মান্নান নির্বাচিত হন। এরপর থেকেই বিএনপি এবং জোট-মহাজোটের প্রার্থীরা বিভিন্ন সময় জয়ী হয়েছিলেন।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে সরকার গঠনের সময় (১৯৭৩ সাল ) এমএ মান্নান এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। এরপর বিভিন্ন সময় বিএনপি এবং জোট-মহাজোটের প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। এবারই প্রথম আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী বেসরকারিভাবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তাছাড়া সাধারণ মানুষ যোগ্য সরকারকে জয়ী করেছেন। এতে প্রধানমন্ত্রী ও দলের প্রধান শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এলাকার উন্নয়নসহ নানামুখী উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ধারাবাহিকভাবে এগিয়ে নেয়ার সুযোগ এসেছে বলে জানান তিনি।

চট্টগ্রাম-৮ (চান্দঁগাও-বোয়ালখালী) আসনের উপনির্বাচনের ভোট গণনায় মোট ১৭০টি কেন্দ্রের কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করেছেন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান। 
এখানে বেসরকারিভাবে ভোটের ফলাফলে নৌকা প্রার্থী মোছলেম উদ্দিন আহমেদ পেয়েছেন ৮৭ হাজার ২৪৬ ভোট এবং নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির আবু সুফিয়ান পেয়েছেন ১৭ হাজার ৯৩২ ভোট। 
এখানে অন্য চার প্রার্থীদের মধ্যে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ'র সৈয়দ মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দীন (চেয়ার) পেয়েছেন ৯৯২, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ফ্রন্ট (বিএনএফ) এসএম আবুল কালাম আজাদ (টেলিভিশন) পেয়েছেন ১ হাজার ১৮৫ ভোট, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির বাপন দাশগুপ্ত (কুড়েঁঘর) পেয়েছেন ৬৫৬ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ এমদাদুল হক (আপেল) পেয়েছেন ৫৬৭ ভোট। 

এর আগে আজ সোমবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে এই ভোটগ্রহণ চলে। এসময় ভোট কেন্দ্রে পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি মোতায়েনের পাশাপাশি ছিল পুলিশের মোবাইল টিম ও স্ট্রাইকিং ফোর্সও।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম নগরীর সিটি করপোরেশনের (চসিক) ৩ নং পাচঁলাইশ ওয়ার্ড, ৪ নং চান্দঁগাও ওয়ার্ড, ৫ নং মোহরা ওয়ার্ড, পূর্ব ঘোষশহর ওয়ার্ড, ৭ নং পশ্চিম ঘোষশহর ওয়ার্ডসহ এই চট্টগ্রাম-৮ আসনের মোট ১৭০টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ভোটার হচ্ছে ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৪শ' ৮৫ ভোট।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার

 


আপনার মন্তব্য