শিরোনাম
প্রকাশ : ৬ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৩:৫৬
আপডেট : ৬ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৪:৩২
প্রিন্ট করুন printer

বনানীতে ট্রেনের ধাক্কায় ব্যক্তির মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

বনানীতে ট্রেনের ধাক্কায় ব্যক্তির মৃত্যু

রাজধানীর বানানীতে ট্রেনের ধাক্কায় জাকির নামে এক ব্যক্তি (৪০) নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তির বাড়ি ভোলা জেলায়।

রবিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বানানী রেলস্টেশন থেকে ২০০ গজ উত্তরে রেললাইনে ট্রেনের ধাক্কায় জাকিরের মৃত্যু।

বিমানবন্দর রেলস্টেশন পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরির্দশক (এএসআই) আনোয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ট্রেনের ধাক্কায় ওই ব্যক্তি মারা যান। তার কাছে একটি মোবাইল ফোন পেয়ে তার নাম জাকির ও বাড়ি ভোলা জেলায়, সেটি জানা যায়। বিস্তারিত আরও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। মরদেহ পুলিশের হেফাজতে আছে।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:০৫
প্রিন্ট করুন printer

অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়ায় রাষ্ট্রের বৈধতা প্রশ্নবিদ্ধ: আ স ম রব

অনলাইন ডেস্ক

অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়ায় রাষ্ট্রের বৈধতা প্রশ্নবিদ্ধ: আ স ম রব
আ স ম আব্দুর রব

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব বলেন, ডিজিটাল আইনে কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু সরকারের চরম নিষ্ঠুরতার আরেকটি বহিঃপ্রকাশ। আমরা এই অপমৃত্যুর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করছি। ডিজিটাল আইন ভিন্নমতকে রুদ্ধ করা এবং গ্রেফতার ও হত্যা করার হাতিয়ারে‌ পরিণত হয়েছে। আমরা এই কালাকানুনের অবিলম্বে প্রত্যাহারের জোর দাবি জানাচ্ছি।

শুক্রবার জেএসডি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক প্রয়াত নুর আলম জিকুর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনায় সভায় ভার্চুয়াল যুক্ত হয়ে এ সব কথা বলে তিনি।

তিনি আরও বলেন, অন্যায়, অনিয়ম এবং বেআইনি কার্যকলাপকে সরকার বন্ধ না করে প্রশ্রয় দিয়ে রাষ্ট্রের বৈধতা প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। রাষ্ট্র নির্মিত হয়েছে আইনের মাধ্যমে দেশ পরিচালিত হবে বলে; কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নয় এবং সকলের ক্ষেত্রেই আইন সমভাবে প্রযোজ্য হবে। কিন্তু সরকার তার অবৈধ ক্ষমতাকে সংহত করার জন্য রাষ্ট্রের অভ্যন্তরের সকল অন্যায়, অবৈধ এবং বেআইনি কার্যক্রমকে প্রশ্রয় দিয়ে যাচ্ছে। রাষ্ট্র নিজেই বেআইনি কাজের উৎসে পরিণত হয়ে রাষ্ট্রীয় স্পর্শকাতর প্রতিষ্ঠানসহ সকল প্রতিষ্ঠানকে নৈতিক ও কাঠামোগতভাবে দুর্বল করে দিচ্ছে এবং এভাবে চলতে থাকা রাষ্ট্র বেশিদিন টিকতে পারে না।

গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে এই সরকারকে অপসারণ করা ছাড়া ধ্বংসাত্মক রাষ্ট্র মেরামতের আর কোনো বিকল্প নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।  

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন দলের কার্যকরী সভাপতি সা কা ম আনিছুর রহমান খান। বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট ছানোয়ার হোসেন তালুকদার, কার্যকরী সভাপতি মোহাম্মদ সিরাজ মিয়া  কার্যকরী সাধারণ সম্পাদক জনাব শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, সহ-সভাপতি এডভোকেট কে এম জাবির, এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিন পাটোয়ারী, এডভোকেট বেলায়েত হোসেন বেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, অধ্যাপক ইউসুফ সিরাজ খান মিন্টু, প্রচার সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, বোরহান উদ্দিন চৌধুরী রোমান, তৌফিক উজ জামান পীরাচা, যুব বিষয়ক সম্পাদক সফিকুল ইসলাম সফিক, মোস্তফা কামাল এবং
প্রয়াত নেতা নুর আলম জিকুর দৌহিত্র শাহনেওয়াজ শাহরিয়ার ধ্রুব।

সভাপতির ভাষণে সা কা  ম আনিছুর রহমান বলেন, নুর আলম জিকু মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ছিলেন। সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের পূর্ব থেকেই নিউক্লিয়াসের সাথে যুক্ত হয়ে সশস্ত্র সংগ্রামের লক্ষ্যে ছাত্র যুব সমাজের মাঝে ব্যাপক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেছেন। 

দলের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট ছানোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে জীবনের শেষদিন পর্যন্ত দলের আদর্শ বাস্তবায়নের সংগ্রামে নুর আলম জিকু যুক্ত ছিলেন। তিনি আমাদের চেতনায় দীর্ঘদিন বেঁচে থাকবেন।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:১৮
প্রিন্ট করুন printer

চাকরির আবেদনের বয়স বাড়ানোর দাবিতে শাহবাগে অবস্থান

অনলাইন ডেস্ক

চাকরির আবেদনের বয়স বাড়ানোর দাবিতে শাহবাগে অবস্থান
সংগৃহীত ছবি

সরকারি চাকরির আবেদনের বয়সসীমা বাড়িয়ে ৩৫ করার দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে মোড়ে অবস্থান নিলেন সাধারণ ছাত্র পরিষদের নেতাকর্মীরা। আজ শু বিকালে তারা এ অবস্থান নেন। এতে যান চলাচল আংশিক ব্যাহত হয়।

তবে পুলিশ অবস্থানকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে। ফলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এই দাবিতে তারা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন। তাদের দাবি, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সেশনজটের কারণে একজন শিক্ষার্থীর লেখাপড়া শেষ করতেই চাকরিতে প্রবেশের তথা আবেদনের বয়স শেষ হয়ে যায়। তাই তারা চাকরির আবেদনের সময়সীমা ৩৫ বছর করার দাবি জানাচ্ছেন। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৭:৩৩
প্রিন্ট করুন printer

শাহবাগে মুশতাকের গায়েবানা জানাজায় ডা. জাফরুল্লাহ-নূর

অনলাইন ডেস্ক

শাহবাগে মুশতাকের গায়েবানা জানাজায় ডা. জাফরুল্লাহ-নূর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় কারান্তরীণ থাকা অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুতে রাজধানীর শাহবাগে গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজায় উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা এবং ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূরসহ অনেকে।

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর বলেন, সোজা কথা হলো মুশতাক আহমেদের হত্যার দায় সরকারকেই নিতে হবে। এসময় শুক্রবার বিকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে একটি কর্মসূচির কথাও জানান।

এদিকে, লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় আগামী ১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি দিয়েছে বামপন্থী ছাত্রসংগঠনগুলো। শুক্রবার শাহবাগে সমাবেশ ও অবরোধ শেষে এ কর্মসূচি দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে মুশতাক আহমেদ কাশিমপুর কারাগারে মারা যান। তিনি র‍্যাবের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় আটক হয়েছিলেন। গত বছরের মে মাস থেকে গুরুতর অসুস্থ মুশতাক আহমেদ কারাবন্দি ছিলেন।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:০৪
প্রিন্ট করুন printer

১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও করবে বিভিন্ন প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠন

অনলাইন ডেস্ক

১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও করবে বিভিন্ন প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠন
সংগৃহীত ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় কারান্তরীণ থাকা অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদে মশাল মিছিল ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি দিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলো।  

শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টায় শাহবাগ মোড়ের অবস্থান কর্মসূচি শেষ ঘোষণা করে এ কর্মসূচি দেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি আল কাদেরী জয়। 

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় টিএসসি থেকে মশাল মিছিল শুরু হবে। আগামী ১ মার্চ (সোমবার) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কার্যালয় ঘেরাও করা হবে।
 
আল কাদেরী জয় বলেন, লেখক মুশতাক হত্যার প্রতিবাদে আমরা ছাত্র-জনতা গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাত থেকে আন্দোলন করছি। এ অন্যায় হত্যাকাণ্ডের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।
 
কর্মসূচি ঘোষণার পর মিছিল নিয়ে আবার টিএসসির দিকে অগ্রসর হন তারা।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১১:২৬
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৬:০৯
প্রিন্ট করুন printer

বিএনপির সমাবেশ: খুলনায় পরিবহন চলাচল বন্ধের গুঞ্জন

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

বিএনপির সমাবেশ: খুলনায় পরিবহন চলাচল বন্ধের গুঞ্জন
ফাইল ছবি

খুলনা জেলার ১৮টি সড়কে শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা থেকে শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টা পরিবহন চলাচল বন্ধ থাকবে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। বিএনপির দাবি, শনিবার খুলনা বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশকে কেন্দ্র করেই পরিবহন বন্ধ রাখা হচ্ছে। যাতে করে অন্য জেলার বিএনপি নেতাকর্মীরা সমাবেশে আসতে না পারে।

মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, পরিবহন বন্ধ করা মানে সমাবেশ হবে না এটা ভাবার কোনো অবকাশ নেই। পরিবহন বন্ধ রাখা মানে আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকারের ওপর নগ্ন হস্তক্ষেপ। আগে থেকেই পরিবহন বন্ধ করা হতে পারে বিষয়টি মাথা রেখেই প্রস্তুতি নিয়েছে।

উল্লেখ্য, আগামী শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবি, জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাম বাতিলের প্রতিবাদ ও বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিসহ দেশের ছয় সিটিতে সাবেক মেয়র প্রার্থীদের নেতৃত্বে খুলনাতে মহাসমাবেশের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি রয়েছে।  

এ মহাসমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীরউত্তম। বিশেষ অতিথি থাকবেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চোধুরী ও যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। প্রধান বক্তা ছয় সিটির সাবেক মেয়র প্রার্থীরা।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর