শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১২:৩৫
আপডেট : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:৪৫
প্রিন্ট করুন printer

অন্ধকার জগতের আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন ডিজে নেহা

অনলাইন ডেস্ক

অন্ধকার জগতের আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন ডিজে নেহা

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে অতিরিক্ত মদপান করিয়ে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় করা মামলায় গ্রেফতার ডিজে নেহা রিমান্ডে নিজের অন্ধকার জগতের আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন। তদন্তসংশ্লিষ্টরা জানতে পেরেছেন, ফারজানা জামান ওরফে ডিজে নেহার প্রতিটি পার্টিতেই নতুন নতুন মুখ থাকত। তাদের অধিকাংশ ছিল বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া তরুণী।

ধনী ব্যক্তিদের পকেট কাটতে এসব তরুণীকে টোপ হিসেবে ব্যবহার করতেন  ডিজে নেহা। এ ক্ষেত্রে তার হয়ে তরুণ-তরুণীদের একটি চক্রও কাজ করত। তাদের শনাক্তের চেষ্টা করছে পুলিশ।  তবে তিনি সহযোগীদের নাম কৌশলে এড়িয়ে যাচ্ছেন। 

তদন্তসংশ্লিষ্টরা জানান, বেপরোয়া চক্রটির লাগাম টানতে অন্যদের তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করা হচ্ছে। 

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে অতিরিক্ত মদপান করিয়ে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে করা মামলায় বৃহস্পতিবার ডিজে নেহা গ্রেফতার হন। এর পর শুক্রবার পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে রাতের ঢাকার বার-রেস্টুরেন্টের অজানা তথ্য বেরিয়ে আসছে। 

ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর বাবার করা মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ২৮ জানুয়ারি বিকাল ৪টায় মর্তুজা রায়হান ওই তরুণীকে নিয়ে মিরপুর থেকে আরাফাতের বাসায় যান। সেখানে স্কুটার রেখে আরাফাত, ওই তরুণী এবং রায়হান একসঙ্গে উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের ব্যাম্বুসুট রেস্টুরেন্টে যান। সেখানে আগে থেকেই আরেক আসামি নেহা এবং একজন সহপাঠী উপস্থিত ছিলেন। সেখানে আসামিরা ওই তরুণীকে জোর করে ‘অধিক মাত্রায়’ মদপান করান। মদপানের একপর্যায়ে ভুক্তভোগী তরুণী অসুস্থ বোধ করলে রায়হান তাকে মোহাম্মদপুরে তার এক বান্ধবীর বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে নুহাতের বাসায় নিয়ে যান। সেখানে তরুণীকে ধর্ষণ করেন রায়হান। তখন রায়হানের বন্ধুরাও কক্ষে ছিলেন। ধর্ষণের পর রাতে ওই তরুণী অসুস্থ হয়ে বমি করলে রায়হান তার আরেক বন্ধু অসিম খানকে ফোন দেন। সেই বন্ধু পরদিন এসে তরুণীকে প্রথমে ইবনে সিনা ও পরে আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। দুদিন লাইফ সাপোর্টে থাকার পর মৃত্যু হয় তরুণীর।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১১:১৭
প্রিন্ট করুন printer

খুলনায় বিএনপির সমাবেশ ঘিরে টেনশন বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনায় বিএনপির সমাবেশ ঘিরে টেনশন বাড়ছে

দেশে অবাধ সুষ্ঠু গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবিতে আজ (শনিবার) দুপুরে খুলনায় বিএনপি’র সমাবেশ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত সমাবেশস্থলের অনুমতি না দিয়ে দলীয় কার্যালয়ের ভিতরে সভা-সমাবেশ করার কথা বলছে পুলিশ। এছাড়া শুক্রবার রাত থেকেই পুলিশের একটি টিম কেডি ঘোষ রোডে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের একটি টিমকেও সেখানে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। নগরীর শিববাড়ি মোড়সহ আরও কয়েকটি স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে যে কোন মূল্যে সমাবেশ বাস্তবায়নের পক্ষে অনঢ় রয়েছে বিএনপি নেতারা। সমাবেশস্থলের কোন অনমুতি না পেলে শেষ পর্যন্ত দলীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কেই সমাবেশ করা হবে জানানো হয়েছে। বিএনপির কেন্দ্রিয় নেতারা ঢাকা থেকে রওয়ানা দিয়ে খুলনার পথে রয়েছেন। রাতে বিভিন্ন হোটেলে পুলিশ অভিযান চালাতে পারে এ কারণে আগেভাগে কোনো সিনিয়র নেতা খুলনায় অবস্থান করেননি। 

খুলনা মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম বলেন, মহাসমাবেশ কখনো ইনডোরে হয় না। আমাদের অবস্থান সুদৃঢ় থাকবে ও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেই সমাবেশ বাস্তবায়ন করবো। সমাবেশে কেন্দ্রিয় ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, শামসুজ্জামান দুদু, অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ ছয়টি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থীরা উপস্থিত থাকবেন। 

এদিকে সমাবেশের আগ মুহূর্তে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে খুলনা জেলার ১৮টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। জেলা বাস-মিনিবাস-কোচ মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনা জানান, বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হতে পারে এজন্য শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টা শহরের কোনো পরিবহন ছেড়ে যাবে না এবং কোনো পরিবহন শহরে প্রবেশ করবে না।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দী


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১১:০১
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১১:০৫
প্রিন্ট করুন printer

ঢাকা বারে সভাপতি আওয়ামী লীগের, সাধারণ সম্পাদক বিএনপির

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা বারে সভাপতি আওয়ামী লীগের, সাধারণ সম্পাদক বিএনপির
আবুল বাতেন ও হযরত আলী

ঢাকা আইনজীবী সমিতির ২০২১-২২ মেয়াদের কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলে সভাপতি পদসহ ১৫ জন জয়ী হয়েছেন। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদকসহ আট পদে জয়ী হয়েছে বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলের বিজয়ীরা হলেন- সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল বাতেন, সিনিয়র সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে এ কে এম সালাহউদ্দিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক এস এম মনিরুজ্জামান (তারেক), ট্রেজারার পদে একেএম আরিফুল ইসলাম কাওছার, লাইব্রেরি সম্পাদক পদে শারমিন সুলতানা হ্যাপী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে শায়লা পারভীন পিয়া, অফিস সম্পাদক পদে জাকির হোসাইন (লিঙ্কন), ক্রীড়া সম্পাদক পদে মো. রফিকুল ইসলাম ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এ এস ইমরুল কায়েশ।

অপরদিকে সাদা প্যানেলের সদস্য পদে বিজয়ীরা হলেন- এ বি এম ফয়সাল সারোয়ার, বাহারুল ইসলাম (বাহার), মো. মহিন উদ্দিন (মহিন), জুয়েল চন্দ্র মাদক, সুলতানা রাজিয়া রুমা ও মো. আহসান হাবিব।

বিএনপি-সমর্থিত নীল প্যানেলের বিজয়ীরা হলেন- সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার মো. হযরত আলী, সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে আলহাজ কামাল উদ্দিন ও সহ-সভাপতি পদে মো. আনিসুর রহমান (আনিস)।

এ প্যানেলের সদস্য পদে বিজয়ীরা হলেন- বাবুল আক্তার (বাবু), এম আর কে রাসেল, মো. হোসনী মোবারক (রকি), মো. সোহাগ হাসান রনি ও মোসা. তাসলিমা আক্তার। 

গণনা শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার অ্যাডভোকেট আব্দুল্লাহ আবু এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দী


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:৫৯
প্রিন্ট করুন printer

কলাবাগানে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, পরিবারের অভিযোগ হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

কলাবাগানে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, পরিবারের অভিযোগ হত্যা
প্রতীকী ছবি

রাজধানীর কলাবাগে একটি বাসার ছাদ থেকে ফেলে দিয়ে এক নারী শিক্ষার্থীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তার নাম তাজমিয়া মোস্তফা মৌমিতা (১৯)। তিনি মালয়েশিয়ার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতেন।

কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিতোষ চন্দ্র ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মৌমিতা নামের এক শিক্ষার্থীর মরদেহ হাসপাতাল থেকে উদ্ধার করেছি। পরিবার ছাদ থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ করেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতাবস্থায় তাকে ধানমন্ডি গ্রিন লাইফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত মৌমিতার ফুফা হুমায়ুন কবির গণমাধ্যমকে জানান, মৌমিতা স্বপরিবারে মালয়েশিয়া থাকতো। দুই মাস আগে দেশে এসে বাবা মো. শামীমের সঙ্গে ঢাকার ধানমন্ডি ৮ নম্বর রোডের ২ নম্বর বাসায় থাকতো। তাদের গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার ভুয়াপুর উপজেলায়।

তিনি জানান, সন্ধ্যায় সংবাদ পাই ছাদ থেকে পড়ে মারা গেছে মৌমিতা। কিন্তু ছাদ থেকে পড়ে মারা যাওয়ার মত কোনও কারণ পাইনি।

অভিযোগ করে হুমায়ুন আরও জানান, একই বাসার পাঁচ তলার ভাড়াটিয়া এক যুবক মৌমিতাকে উক্ত্যক্ত করতো। এ ব্যাপারে তার পরিবারকে জানানো হলেও তারা এ বিষয়ে কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। আমাদের ধারণা ওই যুবক মৌমিতাকে ছাদ থেকে ফেলে দিয়ে হত্যা করেছে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:৫১
প্রিন্ট করুন printer

খুলনায় আজ বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশ

অনলাইন ডেস্ক

খুলনায় আজ বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশ

কেন্দ্রীয় কর্মসূচি অনুযায়ী খুলনায় আজ শনিবার বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশ হওয়ার কথা রয়েছে। দুপুর আড়াইটায় নগরীর শহীদ মহারাজ চত্বরে এ সমাবেশ হবে। 

বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু অভিযোগ করেন, সমাবেশের অনুমতি চেয়ে কয়েক দফায় আবেদন করলেও কোনো জায়গায় অনুমতি পাওয়া যায়নি। এ ছাড়া পরিবহন বিভাগের মালিকদের ডেকে নিয়ে খুলনার ১৮টি সড়কে সব ধরনের গাড়ি চলাচল ২৪ ঘণ্টা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত খুলনা মহানগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপির অন্তত ৩০ নেতাকর্মীকে গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়াই আটক করা হয়েছে।  

তবে খুলনা জেলা বাস-মিনিবাস-কোচ মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনা জানান, শনিবার বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হতে পারে। এ জন্যই শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খুলনা থেকে কোনো পরিবহন ছেড়ে যাবে না এবং কোনো পরিবহন শহরে প্রবেশ করবে না।

প্রসঙ্গত, শনিবার সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবি, জিয়াউর রহমানের বীর-উত্তম খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে খুলনাতে বিএনপির এ মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দী


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:২৩
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১১:৫০
প্রিন্ট করুন printer

দুর্বৃত্তের গুলিতে আহত যুবলীগ নেতা ঢামেকে ভর্তি

অনলাইন ডেস্ক

দুর্বৃত্তের গুলিতে আহত যুবলীগ নেতা ঢামেকে ভর্তি

রাজধানীর মানিকদীতে দুর্বৃত্তের গুলিতে আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৫ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আসমত আলী।

তার বাবা আজমত আলী জানান, গতরাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে মানিকদী বাজারে আসমত গুলিবিদ্ধ হন। পরে পুলিশের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করা হয়। রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  

শনিবার ভোরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দী


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর