শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০১:২১
প্রিন্ট করুন printer

জোরপূর্বক দেহব্যবসা করানোর অভিযোগে সেই নারী কাউন্সিলর গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

জোরপূর্বক দেহব্যবসা করানোর অভিযোগে সেই নারী কাউন্সিলর গ্রেফতার
রোকসানা আহমেদ রোজী

জোরপূর্বক দেহব্যবসা করানোর অভিযোগ ছিল গাজীপুর সিটি করপোরেশনের এক নারী কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ওই নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজীকে অবশেষে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১। শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে, জোর করে দেহব্যবসা করানোর অভিযোগে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বাসন থানায় বিউটি পার্লার কর্মী ওই নারী বাদী হয়ে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজীসহ দুইজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকে পলাতক ছিলেন অভিযুক্ত কাউন্সিলর রোজী। এ ঘটনার সাথে জড়িত এজাহারভুক্ত নুরুল হককে আগেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

র‍্যাব-১ গাজীপুর পোড়াবাড়ী কোম্পানি কমান্ডার আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, বিউটি পার্লার কর্মী দিয়ে দেহব্যবসা করানোর ঘটনাটি ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকার দক্ষিণখান এলাকা থেকে অভিযুক্ত ওই নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজীকে আটক করতে সক্ষম হয়েছি।

তিনি আরও জানান, গত মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে বাসন থানায় দায়ের করা ওই মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ১৬, ১৭ ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজী (৪০) ও নগরীর গ্রেটওয়াল সিটির মোফাজ্জল হোসেনের বাড়ির কেয়ারটেকার মো. নূরুল হক (৬৫)। এছাড়া মামলায় অজ্ঞাত দুই-তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

বাসন মেট্রো থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ওই নারীর বাড়ি নেত্রকোনা জেলায়। গাজীপুরে কোনো স্বজন না থাকায় অভিযুক্ত নারী কাউন্সিলরের ভাড়া বাসায় থাকত। নারী কাউন্সিলর তাকে জিম্মি করেই দেহব্যবসা করিয়ে আসছিলেন বলে অভিযোগ এনে থানায় মামলা করেছে সে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর