শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ জুন, ২০২১ ১৬:৩৪
আপডেট : ২৭ জুন, ২০২১ ১৬:৫৯
প্রিন্ট করুন printer

রংপুর করোনা ডেডিকেডেট হাসপাতাল

২৫ জনের বেশি ডাক্তার-নার্স করোনা আক্রান্ত হলেও কমেনি সেবার মানসিকতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

২৫ জনের বেশি ডাক্তার-নার্স করোনা আক্রান্ত হলেও কমেনি সেবার মানসিকতা
রংপুরে করোনা ডেডিকেটেড আইসোলেশন হাসপাতাল।
Google News

রংপুরে করোনা ডেডিকেটেড আইসোলেশন হাসপাতাল গত বছরের ১৯ এপ্রিল চালু হয়েছে। এখানে ৫০ জন চিকিৎসক ও ১১০ জন নার্স করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন। করোনা ডেডিকেডেট হাসপাতাল চালুর পর থেকে এই হাসপাতালের কমপক্ষে ২৫ জন চিকিৎসক ও নার্স করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

তারপরেও থেমে নেই তাদের সেবার মানসিকতা। তবে এই হাসপাতালে রোগীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার কোনো ব্যবস্থা না থাকায় আক্রান্ত রোগীদের বাইরে থেকে যাবতীয় পরীক্ষা করা হচ্ছে। ফলে কিছুটা ভোগান্তি হচ্ছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, এখানে সেবারত স্বামী-স্ত্রী ডা. আসিফ ও ডা. বৈশাখী। সম্প্রতি তারা দুজনেই করোনা আক্রান্ত হয়েছে। তাদের মতো ২৫ জনের বেশি ডাক্তার ও নার্স বিভিন্ন সময়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তারা সুস্থ হওয়ার পরে আবার করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় নিজেদের নিয়োজিত রেখেছেন।

রংপুর সদর হাসপাতাল সংলগ্ন নবনির্মিত তিন তলা বিশিষ্ট ১০০ শয্যার শিশু হাসপাতাল করোনা ডেডিকেটেড আইসোলেশন হাসপাতাল হিসেবে চালু করা হয়। এখানে বর্তমানে সাধারণ বেডে ৫৭ জন এবং আটজন আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারী মিলে এখানে প্রায় ১৭০ জন দায়িত্ব পালন করছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর জেলায় ১৫৭ জনের দেহে নমুনা পরীক্ষা করে ৭৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যুবরণ করেছেন একজন।

হাসপাতালের  চিকিৎসক ডা. রিফাত জানান, এখানের কর্মরত অনেকেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়ে তারা পুনরায় এখানে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন। এই হাসপাতালটি নির্মাণাধীন শিশু হাসপাতাল ছিল। এখানে আমরা শুধু ভবন পেয়েছি। তাই রোগীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা বাইরে থেকে করাতে হচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর