শিরোনাম
২১ আগস্ট, ২০২১ ২১:৫৭

৩ ঘণ্টার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ জনসন্মুখে প্রকাশের দাবি মেয়র সাদিকের

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

৩ ঘণ্টার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ জনসন্মুখে প্রকাশের দাবি মেয়র সাদিকের

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেছেন, গত বুধবার রাতে সদর উপজেলা পরিষদে সরকারি প্রশাসনের গুলিতে আওয়ামী লীগ এবং সিটি কর্পোরেশনের অর্ধ-শতাধিক নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। ২৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মনিরুজ্জামান মনিরের একটি চোখ দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছে। আরও অনেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর প্রেক্ষিতে স্থানীয়ভাবে অনেক রাজনৈতিক কর্মসূচি দেয়া যেতো। কিন্তু কার বিরুদ্ধে কর্মসূচি দেবেন। এখানে যে কোন কিছু হলে তার দায় আওয়ামী লীগ সরকার এবং প্রধানমন্ত্রীর উপর বর্তায়। এসময় তিনি দলের কোন ক্ষতি হওয়ার আগে পদ ছেড়ে চলে যাওয়ার কথা বলেন। 

শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় নগরীর কালী বাড়ি রোডের সেরনিয়াবাত ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি ওই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত, ইউএনও’র বাস ভবনের রাত ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ৩ ঘণ্টার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ জনসন্মুখে প্রকাশ করার দাবি জানান। 

মেয়র বলেন, আওয়ামী লীগ থাকলে আমি সাদিক আবদুল্লাহ আছি। আওয়ামী লীগ না থাকলে আমার কোন মূল্য নাই। আমার কারণে দল ক্ষতিগ্রস্ত হোক সেটা আমি চাই না। সে রকম কোন পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে পদ ছেড়ে যাওয়ার কথা বলেন তিনি। আমার কোন অন্যায় হলে সেই বিচার প্রধানমন্ত্রী করবেন।

এদিকে, পুলিশ ও ইউএনও’র মামলায় গ্রেফতারের ভয়ে সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনেকে আত্মগোপনে থাকায় নগরীর বর্জ্য ব্যবস্থাপনার গতি কিছুটা শ্লথ হয়েছে। এ কারণে মেয়রসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আজ দুপুরে নগরীর সদর রোডে মানববন্ধন করেন কর্মবিরতির হুঁশিয়ারী দেন বিসিসি’র পরিচ্ছন্ন কর্মীরা। 

এরই প্রেক্ষিতে সংবাদ সম্মেলনে মেয়র বলেন, পরিস্কার পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম ব্যবহত হলে নগরবাসী দুর্ভোগে পড়বে। নগরবাসীতে কোন অপরাধ করেনি। তাই যে কোন মূল্যে নগরীর বর্জ্য অপসারণ স্বাভাবিক করার নির্দেশ দেন তিনি। একই সাথে নগরবাসীর সেবা কার্যক্রম অব্যাহত রাখার স্বার্থে সিটি কর্পোরেশনের কোন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গ্রেফতার কিংবা হয়রানি না করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান ওই দুই মামলার প্রধান আসামি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ। 

এসময় বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা, বিভিন্ন উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়রগণ উপস্থিত ছিলেন।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর