Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫৪

নাটোর ও নলডাঙ্গায় হেলমেট বাহিনী ত্রাস চালাচ্ছে

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোর ও নলডাঙ্গায় হেলমেট বাহিনী ত্রাস চালাচ্ছে

নাটোর জেলা বিএনপির অভিযোগ, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই নাটোরে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীদের ওপর অব্যাহতভাবে হামলা চালানো হচ্ছে। হেলমেট বাহিনী নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে।

গতকাল জেলা বিএনপি অফিসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক মো. আমিনুল হক বলেন, নাটোর সদর আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী সংসদ সদস্য মো. শফিকুল ইসলাম শিমুলের নির্দেশে তার সমর্থক হেলমেট বাহিনী পরিকল্পিতভাবে বেছে বেছে বিএনপির ত্যাগী, নিবেদিত ও পরীক্ষিত নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা করছে। ধারাবাহিক এ নির্যাতনের শিকার হয়েছেন জেলা যুবদলের তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক রওশন আলী। তাকে গতকাল সকালে কাঁঠালবাড়িয়ায় মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে তার কাছে থাকা একটি মোটরসাইকেল ও দামি মোবাইল ফোন সেট কেড়ে নেওয়া হয়। এ সময় তারা ঝাউতলায় জেলা বিএনপির সহসভাপতি মো. শহিদুল ইসলাম বাচ্চুর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান দখলে নিয়ে নির্বাচন প্রচার কেন্দ্র করার হুমকি দেয়। এ বাহিনী পিপরুল ইউনিয়ন বিএনপির কর্মী জহুরুল মেম্বারকে মারধর করে তার কাছে থাকা মোটরসাইকেলটি ছিনিয়ে নেয়। এ ছাড়া ওই বাহিনী সকালে দিঘাপতিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার ও গত ইউপি নির্বাচনে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সাইফুল ইসলামকে মারার জন্য ধাওয়া করলে তিনি প্রাণভয়ে নদী পার হয়ে বেঁচে গেলেও সন্ত্রাসীরা তার দামি মোটরসাইকেলটি নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ছাড়া ছাতনী ইউনিয়নে বেজপাড়া গ্রামে ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক গোলাম মোস্তফা বাবুকে বেধড়ক মারধর করা হয়েছে। তারা ৪ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি পক্ষাঘাতগ্রস্ত মো. সাইফুজ্জামান সৌরভের বাড়িতে ঢুকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে তাকে মারাত্মক আহত করেছে।

যশোরে গায়েবি মামলা : যশোর থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক জানিয়েছেন, গতকাল দুপুরে যশোর প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতারা অভিযোগ করেছেন, তফসিল ঘোষণার পরও যশোরে বিএনপি নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশের গায়েবি মামলা, আটক, হুমকি-ধমকি অব্যাহত রয়েছে। ফলে যশোর সদর, শার্শা উপজেলাসহ বেশির ভাগ স্থানে পুলিশের কারণে বিএনপি নেতা-কর্মীরা বাড়িতে থাকতে পারছেন না। তারা অভিযোগ করেন, ১ ডিসেম্বর বিএনপির ৪২ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে পুলিশ গায়েবি মামলা দেয়। সেখানে আটক করা হয় ১৩ জনকে। আটকদের মধ্যে যারা টাকা দিতে পারছেন তাদের পেন্ডিং মামলা, টাকা না দিলে অস্ত্র মামলা দেওয়া হচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহসাংগঠনিক সম্পাদক যশোর-৩ আসনের প্রার্থী অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক দফতর সম্পাদক যশোর-১ আসনের প্রার্থী মফিকুল হাসান তৃপ্তি, জেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন খোকন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর