শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৯ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ মে, ২০২১ ২৩:২৫

দেশের প্রায় ৪ শতাংশ লোক থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ১০ শতাংশ লোক থ্যালাসেমিয়া রোগের জিন বহন করছে এবং প্রায় ৪ শতাংশ লোক থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত। গতকাল বিশ্ব থ্যালাসেমিয়া সচেতনতা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে শুক্রবার রাতে যৌথভাবে এক ভার্চুয়াল সেমিনারের আয়োজন করে ল্যাব ওয়ান ফাউন্ডেশন অব থ্যালাসেমিয়া ও রোটারি ক্লাব অব তুরাগ উত্তরা। এ সময় সাইন্টিফিক পেপার উপস্থাপনায় ওই তথ্য তুলে ধরেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হেমাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক ও ল্যাব ওয়ান ফাউন্ডেশন অব থ্যালাসেমিয়ার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক ডা. মো. সালাহ্উদ্দীন শাহ্। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ল্যাব ওয়ান ফাউন্ডেশন অব থ্যালাসেমিয়ার সহসভাপতি ডা. জিনাত আরা। সাইন্টিফিক পেপারে অধ্যাপক ডা. মো. সালাহ্উদ্দীন শাহ্ বলেন, এটি একটি বংশগত রক্তের রোগ। থ্যালাসেমিয়া ধারণকারী মানুষ সাধারণত রক্তে অক্সিজেন স্বল্পতা বা অ্যানিমিয়াতে ভুগে থাকেন।

অ্যানিমিয়ার ফলে অবসাদগ্রস্ততা থেকে শুরু করে অঙ্গহানি পর্যন্ত ঘটতে পারে। বাবা অথবা মা, অথবা বাবা-মা উভয়েরই থ্যালাসেমিয়ার জিন থাকলে বংশানুক্রমে এটি সন্তানের মধ্যে ছড়ায়। এই রোগ কোনো ছোঁয়াচে রোগ নয়। জিনগত ত্রুটির কারণে এই রোগ হয়ে থাকে।

এই বিভাগের আরও খবর