শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ মার্চ, ২০২০ ০৪:৩৮

শের-ই বাংলা মেডিকেলের করোনা ইউনিটে ভর্তির পরপরই নারীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:

শের-ই বাংলা মেডিকেলের করোনা ইউনিটে ভর্তির পরপরই নারীর মৃত্যু

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে নেয়ার সাথে সাথে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটের দিকে ওই রোগীর মৃত্যু হয়। এর মাত্র ১৫ মিনিট আগে ওই রোগীকে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা। সেখানে রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে উপসর্গ শুনে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে করোনা ইউনিটে প্রেরণ করেন। সেখানে পৌঁছানোর সাথে সাথে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই রোগীকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন।

ওই মৃত ব্যক্তির স্বজনদের উদ্বৃতি দিয়ে হাসপাতালের পরিচালক আরও বলেন, এই রোগী ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ৩ দিন আগে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানে চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যান। এরপর বাড়িতে বসে তিনি জ্বর, গলা ব্যথা ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হন। শনিবার তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাত পৌঁনে ১২টার দিকে শের-ই বাংলা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। তার ডায়বেটিস এবং উচ্চ রক্তচাপ ছিল বলে মুঠোফোনে জানান তার স্বজনরা। 

এছাড়া তার কোন স্বজন বিদেশ থেকে আসেননি কিংবা তিনিও বরিশালের বাইরে কোথাও যাননি বলে স্বজনদের উদ্বৃতি দিয়ে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক। 

মৃত নিরু বেগম (৪৫) বরিশাল নগরীর কাউনিয়া পুড়ানপাড়া এলাকার মো. দুলালের স্ত্রী। তিনি দুই সন্তানের জননী। হাসপাতালে মারা যাওয়ার পরপরই স্বজনরা তার মৃত দেহ বাসায় নিয়ে যান।

শনিবার দিবাগত রাত পর্যন্ত শের-ই বাংলা মেডিকেলের করোনা ইউনিটে করোনা সন্দেহে ৬ জন রোগী চিকিৎসাধীন আছেন বলে জানিয়েছেন পরিচালক। তবে তারা কেউ করোনায় আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত হতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। এমনকি এই হাসপাতালে নেই করোনা সনাক্তকরণ কোন ব্যবস্থাও।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য