Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৪ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৫৮

আগৈলঝাড়ায় ঝুঁকিতে বোরো আবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

আগৈলঝাড়ায় ঝুঁকিতে  বোরো আবাদ
আগৈলঝাড়ার রাজিহার খালের মুখে দেওয়া বাঁধ। একইভাবে বাঁধ দেওয়া হয়েছে গৈলা খালের মুখেও। ফলে দেখা দিয়েছে পানির সংকট -বাংলাদেশ প্রতিদিন

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় সড়ক সংস্কার ও ব্রিজ নির্মাণ কাজে ধীরগতির কারণে ঝুঁকিতে পড়েছে দুই সহস্র্রারাধিক কৃষকের বোরো আবাদ। নির্মাণ কাজের জন্য উপজেলার রাজিহার ও গৈলা খালের মুখে দুটি বাঁধ নির্মাণ করায় ৩৫টি ব্লকে দেখা দিয়েছে পানি সংকট। বড় এ দুটি খালের পানি প্রবাহ স্বাভাবিক না থাকায় শুকিয়ে গেছে সংযোগ খালগুলোও। এ অবস্থায় দ্রুত দুটি বাঁধ কেটে দিয়ে কৃষি ব্লকের পানি সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার দাবি জানিয়েছেন চাষিরা। আগৈলঝাড়ার আগাম বোরো চাষিরা জানিয়েছেন, বরিশাল সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতায় উপজেলা সদর থেকে ঘোষেরহাট পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন ও থানার সামনে ব্রিজ নির্মাণ কাজ চলছে। এ কাজের সুবিধার্থে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ১০/১২ দিন আগে দুটি খালের প্রবেশমুখে বাঁধ দেয়। বাঁধ দেওয়ার সময় স্বল্প সময়ের কথা বলায় তখন কৃষকরা আপত্তি করেননি। কিন্তু বাঁধ তৈরির পর থেকে কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। দীর্ঘ সময় বাঁধ থাকায় দেখা দিয়েছে পানি সংকট। পানির অভাবে বোরো চাষ করতে পারছেনা কৃষকরা। এতে আর্থিকভাবে তাদের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

আগৈলঝাড়ার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা সুভাষ চন্দ্র জানান, চলতি বছর উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে ৯ হাজার ৬৬৩ হেক্টর জমি ইরি-বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এই উপজেলায় চাল উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা দলা হয়েছে ৪ লাখ ৩ হাজার ৩১৩ মেট্রিকটন। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় চলতি মৌসুমে ইতিমধ্যে ১ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে আগাম বোরো আবাদ করেছে কৃষকরা। কিন্তু পানি সমস্যার কারণে উৎপাদন প্রক্রিয়া ব্যাহত হচ্ছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন বলেন, বাঁধের কারণে পানি সংকটে কৃষকের চাষাবাদে সমস্যার কথা ইউএনওকে জানানো হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক ও ব্লকের তালিকাও তাকে দেওয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র জানান, বাঁধের কারণে বড় ৩০-৩৫টি এবং অনেক ছোট ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।


আপনার মন্তব্য