Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ মার্চ, ২০১৯ ২৩:৪০

জরাজীর্ণ সেতু দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

জরাজীর্ণ সেতু দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল
‘সাবধান, ঝুঁকিপূর্ণ বেইলি সেতু’ সাইনবোর্ড টাঙিয়ে দিয়েছে সওজ কর্তৃপক্ষ। তবে বিকল্প না থাকায় এই সেতুটি ব্যবহার করছে স্থানীয়রা -বাংলাদেশ প্রতিদিন

লক্ষ্মীপুর জেলার রহমতখালি নদীর উপর নির্মিত গুরুত্বপূর্ণ তেরবেকী বেইলি সেতুটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। বর্তমানে এ সেতু দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে হাজারো মানুষ ও যানবাহন। সড়ক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, লক্ষ্মীপুর শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমে রহমতখালি নদীর উপর ১৯৯০ সালে নির্মাণ করা হয় তেরবেকী বেইলি সেতু। লক্ষ্মীপুর-ভোলা-বরিশাল সড়কের সঙ্গে পৌর শহরের প্রধান সংযোগ সড়কের শুরুতেই এর অবস্থান। এ সেতু দিয়ে প্রতিদিন সদর উপজেলার টুমচর, চররুহিতা, শাকচর, চর রমনী ও কমলনগর উপজেলার চরমার্টিন ইউনিয়নসহ প্রায় ৩০ গ্রামের মানুষ চলাচল করে। ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে সেতুটির অনেক স্থানে স্লাব দেবে গেছে। অনেক জায়গায় সৃষ্টি হয়েছে ছোট-বড় গর্ত। তবুও ঝুঁকি নিয়ে চলছে শিক্ষার্থীসহ এলাকার হাজার হাজার বাসিন্দা। ফলে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। দীর্ঘদিন আগে সেতুটিকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে ভারী যান চলাচলে সতর্কতামূলক সাইন বোর্ডও লাগিয়েছে সড়ক বিভাগ। একইভাবে জেলার রামগঞ্জ-হাজীগঞ্জ সড়কের মন্ডলতলী বেইলি সেতু, মান্দারী-দাসের হাট সংযোগ সড়কের মান্দারী পূর্ব বাজার ব্রিজ ও দাসেরহাট-মান্দারী সড়কের দিঘলী ব্রিজও দীর্ঘদিন ধরে জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে আছে। দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার লোকজন। লক্ষ্মীপুর সড়ক বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোজাম্মেল হক ঝুঁকিপূর্ণ সেতুগুলোর কথা স্বীকার করে জানান, নতুন চারটি সেতু নির্মাণের জন্য মন্ত্রাণালয়ে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পেলে টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্নসহ আগামী বছরে কাজ শুরু করা হতে পারে বলেও জানান তিনি।

 


আপনার মন্তব্য