শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ জুন, ২০২১ ০০:০৬

এক সপ্তাহে তিস্তায় বিলীন তিন শতাধিক ঘরবাড়ি

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

এক সপ্তাহে তিস্তায় বিলীন তিন শতাধিক ঘরবাড়ি
Google News

উজান থেকে আসা ঢলে তিস্তার পানি বেড়ে যাওয়ায় গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয়েছে ভাঙন। অব্যাহত ভাঙনে গত এক সপ্তাহে তিস্তায় হারিয়ে গেছে হরিপুর ইউনিয়নের কাশিমবাজার গ্রাম এবং চন্ডিপুর, তারাপুর, কাপাসিয়া ও শ্রীপুর ইউনিয়নের তিন শতাধিক ঘরবাড়ি ও ফসলি জমি। ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড জরুরি ভিত্তিতে জিও ব্যাগ ও বালির বস্তা ফেলছে। কোনো কাজে আসছে না বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। ভাঙনের আশঙ্কায় নদীপাড়ে বসবাসরত পরিবারগুলোর দুশ্চিন্তায় দিন কাটচ্ছে। এদিকে চন্ডিপুর ইউনিয়নের উজান বোচাগাড়ি, পাঁচপীর খেয়াঘাট, তারাপুর ইউনিয়নের খোদ্দা, লাঠশালা ও খেয়াঘাটসহ  বিভিন্ন চরে ভাঙন দেখা দিয়েছে।

ভাঙনকবলিত পরিবাগুলোর আশ্রয় নেওয়ার জায়গা নেই। স্থানীয়রা জানান, যেভাবে নদী ভাঙছে তাতে আগামী ১০ দিনে এলাকার নাজিমাবাদ বিএল উচ্চ বিদ্যালয় ভেসে যাওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান বলেন, হরিপুর ইউনিয়নের কাশিমবাজারে ভাঙন রোধে স্থায়ী প্রতিরক্ষামূলক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া কোনো কোনো ইউনিয়নে জরুরি কার্যক্রম চলছে।