Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৫৮

সিংড়ায় কাজ বন্ধ করে কৃষকদের বিক্ষোভ

নাটোর প্রতিনিধি:

সিংড়ায় কাজ বন্ধ করে কৃষকদের বিক্ষোভ

নাটোরের সিংড়ায় চলতি ইরি-বোরো মৌসুমে কৃষকদের কাছ থেকে গভীর ও অগভীর নলকূপের অতিরিক্ত সেচমূল্য আদায় করছে বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। এর প্রতিবাদে সেচ কাজ বন্ধ রেখে প্রতিবাদ জানিয়েছে ভুক্তভোগী কৃষকরা। আজ সোমবার সকালে নাটোরের সিংড়া উপজেলার ২ নং ডাহিয়া ইউনিয়নের বড়গাঁও ও রঘুকদমা গ্রামের মাঠে কৃষকরা বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন সমাবেশ করে। এতে অংশ নেন বড়গাঁও, রঘু কদমা, হাতিয়ান দিঘী, ছাতুয়া, মষিগারী, তাড়াই, বড়ই চড়াসহ ৭ গ্রামের প্রায় দেড় শতাধিক ভুক্তভোগী কৃষক।

কৃষকদের অভিযোগ, সিংড়া উপজেলার বরেন্দ্র বহুমুখীর আওতাধীন ৭ গ্রামের মাঠ জুড়ে প্রায় ২শত একর জমিতে ৩টি গভীর নলকূপ স্থাপন করা হয়েছে। বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন র্কতৃপক্ষ তাঁদের আওতাধীন গভীর নলকূপের সেচমূূল্য প্রতি ঘন্টায় ১২৫ টাকা নির্ধারণ করেছে। পুরো মৌসুম প্রতি বিঘা জমির সেচ মূল্য নির্ধারণ হয়েছে ১ হাজার ৫০০ টাকা। অথচ বরেন্দ্র বহুমুখী প্রকল্পের তত্বাবধানে থাকা মালিক পক্ষের অপারেটররা তা মানছেন না। তাঁরা এই তথ্য গোপন করে কৃষকদের কাছ থেকে ২ হাজার ৮০০ শত থেকে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত সেচ মূল্য আদায় করছেন। অর্থাৎ কৃষকদের কাছ থেকে প্রতি বিঘায় ১৩০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকা অতিরিক্ত সেচ মূল্য নেওয়া হচ্ছে।

সিংড়া উপজেলা সেচ কমিটির সদস্য সচিব ও উপজেলা কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের সহকারি প্রকৌশলী তহিদুল আলম বলেন, বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের আওতায় উপজেলায় মোট ৭৪টি গভীর নলকূপ আছে। এলাকার জমি ভেদে সেচ মূল্য নির্ধারণ করা হয়। উপজেলার চামারী ও খাজুরা ইউনিয়ন ব্যতীত ডাহিয়া, ইটালিসহ ১০টি ইউনিয়নের মাঠের জমির সেচ মূল্য মৌসুমে প্রতি বিঘা ১৫০০টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।’

সেচ কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, সেচে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। নির্ধারিত সেচ মূল্যের চেয়ে কেউ বেশি নিলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য