Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:০২

অন্তঃসত্ত্বা তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী জবানবন্দি শেষে মায়ের জিম্মায়

রেজাউল করিম মানিক, রংপুর

অন্তঃসত্ত্বা তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী জবানবন্দি শেষে মায়ের জিম্মায়

রংপুরে ২৫ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীর আদালতে জবানবন্দি শেষে মায়ের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় রংপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে জবানবন্দি গ্রহণ করেন বিচারক স্নিগ্ধা রাণী চক্রবর্তি। এবং রাত ১১টার দিকে মায়ের জিম্মায় দেওয়া হয়।

ঘটনার সাথে অভিযুক্ত আসামী বিষপানে আত্মহত্যা করায় মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা আসামীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে উত্তোলনের জন্য আদালতে আবেদন করেছেন। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা ও জজ আদালতের পিপি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আরপিএমপির হাজিরহাট থানার এসআই ফেরদৌস জানান, রংপুর মহানগরীর নজিরের হাটের রাধাকৃষ্ণপুর রহমতপাড়ার মেয়েটির মা তোফাজ্জল হোসেনের রান্নার কাজ করতো। মায়ের কাজ করার সুবাদে কন্যা রাধাকৃষ্ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী (১১) সেখানে যাতায়াত করতো। মায়ের সাথে মেয়েটিও বিভিন্ন কাজকর্ম করতো। এরই মধ্যে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পর দেখা যায় মেয়েটি ২৫ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা। এরপর মেয়েটিকে নজিরেরহাটে ল্যাপরোসি মিশনে ভর্তি করা হয়। এরপর মেয়ের মা ১৮ আগস্ট হাজিরহাট থানায় অজ্ঞাতনামাদের অভিযুক্ত করে একটি ধর্ষণ মামলা করেন।

তদন্ত কর্মকর্তা আরো জানান, ধর্ষণের ঘটনায় প্রাথমিক ভাবে অভিযুক্ত তোফাজ্জল হোসেন বিষক্রিয়ায় মারা গেছে। তার মৃত্যু কিভাবে হল তা জানার জন্য লাশের ময়নাতদন্ত প্রয়োজন। এ জন্য আদালতে আবেদন করা হয়েছে।

রংপুর জজ আদালতের পিপি আব্দুল মালেক জানান, এ ঘটনার মামলার বাদি মেয়েটির মা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-১ শিশুটিকে আনেন। আদালতের বিচারক স্নিগ্ধা রানী চক্রবর্তি তার জবানবন্দি গ্রহণ করেন।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য