Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:৫২

কুমিল্লা আদালতে প্রবেশকালে ছোরাসহ নারী আটক

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

কুমিল্লা আদালতে প্রবেশকালে ছোরাসহ নারী আটক

কুমিল্লার আদালতে প্রবেশের সময় একটি ছোরাসহ রোজিনা বেগম নামের এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার বিয়ের কাবিন সংগ্রহের জন্য ওই নারী আদালতে প্রবেশের সময় পুলিশ তার সাথে থাকা ভ্যানিটি ব্যাগ তল্লাশি করে একটি ছোরাসহ তাকে আটক করে। 

আটককৃত ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। রোজিনার গ্রামের বাড়ির কুমিল্লার লালমাই উপজেলার তুলাতলী গ্রামে।

কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, সাম্প্রতিকালে কুমিল্লা আদালতে একটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশ আদালতে নিরাপত্তা জোরদার করেছে। এরই অংশ হিসেবে রবিবার আদালতে প্রবেশকালে তল্লাশি চালিয়ে ওই নারীর ব্যাগে একটি ছোরা পেয়ে তাকে আটক করা হয়। রোজিনা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে এটা বাড়ির ছোটখাট কাজ করার ছোরা। শিশুরা এটা নিয়ে নাড়া-ছাড়া করায় তিনি ব্যাগে রেখেছেন। ভুলক্রমে সেই ব্যাগ নিয়ে কোর্টে চলে এসেছেন। তার প্রথম বিয়ে ডিভোর্স হয়েছে। দ্বিতীয় বিয়ের কাগজপত্রের জন্য তিনি এসেছেন। আমরা আরো খোঁজ খবর নিয়ে তার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৫ জুলাই কুমিল্লার আদালতে বিচারকের খাস কামরায় ঢুকে ফারুক নামের এক আসামিকে টেবিলের উপর শুইয়ে ছুরি দিয়ে উপর্যপুরি কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক বেগম ফাতেমা ফেরদৌসের আদালতে এই ঘটনা ঘটে। নিহত ফারুক কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার কান্দি গ্রামের অহিদ উল্লাহর ছেলে। ঘাতক হাসান কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার ভোজপাড়া গ্রামের শহিদ উল্লাহর ছেলে।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য