শিরোনাম
প্রকাশ : ১ এপ্রিল, ২০২০ ১৭:২৭

গাংনীতে ১০ বাড়ি লকডাউন ঘোষণা

মেহেরপুর প্রতিনিধি

গাংনীতে ১০ বাড়ি লকডাউন ঘোষণা
প্রতীকী ছবি

মেহেরপুরের গাংনীতে মঙ্গলবার রাতে শ্বাসকষ্ট, কাশি ও সর্দি জ্বর নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্তি হয়েছেন মধ্যবয়সী এক ব্যক্তি। তার বাড়ি গাংনী উপজেলার গাড়াডোব গ্রামে। আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়িসহ আশপাশের আরো ১০ টি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছে গাংনী উপজেলা প্রশাসন। 

সিভিল সার্জন মো. নাসির উদ্দীন জানান, শ্বাসকষ্ট ও সর্দি জ্বর নিয়ে গাংনী উপজেলার গাড়াডোব গ্রামের এক ব্যক্তি গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন। ইতিমধ্যে তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হচ্ছে। পরীক্ষা নিরিক্ষার পর ওই ব্যক্তি কোন রোগে আক্রান্ত কিনা জানা যাবে। এর আগে নিশ্চিত করে কিছুই বলা সম্ভব হচ্ছে না। তবে সাবধানতার কারণে ওই রোগীটিকে প্রাতিষ্ঠানিক  কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ওই ব্যক্তির বাড়িসহ পার্শ্ববর্তী ১০ বাড়ি লকডাউন কিংবা প্রশাসনিক নজরদারিতে রাখার আহবান জানানো হয়েছে উপজেলা প্রশাসনকে। 

গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান জানান, ওই পরিবারের লোকজনকে বাড়ির বাইরে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে। তাদের ভোগ্য পণ্যসহ প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি তাদের সরবরাহ করা হবে। তবে পাশ্ববর্তী বাড়িগুলোকে প্রশাসনিক নজরদারিতে রাখা হচ্ছে। আইইডিসিআওে এ পাঠানো রক্তের প্রতিবেদন দুএকদিনের মধ্যে চলে আসবে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শ্বাসকষ্ট, কাশি ও সর্দি জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তির ছেলে বলেন, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বাবার শ্বাসকস্ট আর কাশির মাত্রা বেড়ে গেলে তাকে গাংনী স্বাস্থ্য কপ্লেক্সে নিয়ে যাই। প্রথমে চিকিৎসকরা তার চিকিৎসা দিতে আপরগতা প্রকাশ করেন। পরে রাত ১০ টার দিকে তাকে ভর্তি নেওয়া হয়।

এর আগে গত রবিবার  বাবাকে   শ্বাসকষ্ট, কাশি ও সর্দি জ্বরের কারণে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে ব্যবস্থাপত্র দিয়ে বাড়িতে চিকিৎসা নিতে পরামর্শ দেন। চিকিৎসকের পরামর্শ আনুযায়ী বাড়িতে রেখে তার চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছিল। 

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য