শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ অক্টোবর, ২০২০ ২১:০৩

স্বামীকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করল স্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

স্বামীকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করল স্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে মঙ্গলবার প্রেমিকের পরোচনায় স্বামীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছেন স্ত্রী খাদিজা বেগম (২৫)। মুমূর্ষ অবস্থায় স্বামী রিমন মিয়াকে (৩৩) ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের চাওড়া গ্রামে। 

আহত রিমন মিয়া ওই ইউনিয়নের চাওড়া গ্রামের দৌলতবাড়ি এলাকার মুহাম্মদ সাঈদ মিয়ার ছেলে। জীবিকা নির্বাহের জন্য সে ১২ বছর প্রবাসে ছিল। করোনার কারনে সম্প্রতি দেশে ফিরলে তার আর প্রবাসে যাওয়া হয়নি। 

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রায় ১২ বছর পূর্বে রিমন মিয়ার জেলার আখাউড়া উপজেলার আজমপুর গ্রামের মনির মিয়া মেয়ে খাদিজার বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে এক ছেলে জম্ম গ্রহণ করে। সম্প্রতি মুঠোফোনে সিঙ্গারবিল বাজারের পল্লী চিকিৎসকের ছেলে সজিবের (৩১) সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বিষয়টি জানার পর বিভিন্ন সময় স্বামী রিমন স্ত্রীকে বাধা দিয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে তাদের পরিবারের প্রায়ই কলহ লেগে থাকত। সকাল ১০টার দিকে প্রেমিকের সাথে মুঠোফোনে কথা বলার সময় ধরা পড়েন। এ নিয়ে তাদের মাঝে ঝগড়া হয়। পরে প্রেমিকের কথায় খাদিজা ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বামীকে এলোপাতারি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। 

এলাকাবাসী জানায়, রিমনকে হামলার পর খাদিজার মা-বাবা ও প্রেমিক সজীবসহ ৭-৮ জন যুবক স্ত্রী খাদিজাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। রক্তাক্ত জখম রিমনের মা আনু বেগম জানায়, খাদিজার পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় আমার ছেলে রিমনকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়েছে। 

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিকুর রহমান বলেন, পরকীয়ার জেরেই এই হামলার ঘটেছে বলে আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার

BP

আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর