শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর, ২০২০ ২০:৪৪
প্রিন্ট করুন printer

শেরপুরে কৃষক লীগের সম্মেলনে দু'পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া:

শেরপুরে কৃষক লীগের সম্মেলনে দু'পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০
প্রতীকী ছবি

বগুড়ার শেরপুরে কৃষক লীগের সম্মেলনে দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এরমধ্যে গুরুতর ৫ জনকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার রাতে উপজেলার কুসুম্বী ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন আলতাদিঘী বোর্ডের হাট এলাকায় কুসুম্বী ইউনিয়ন কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় সোমবার বিকেলে দু’পক্ষই থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে। 

সংঘর্ষে আহতরা হলেন- ওই ইউনিয়নের খিকিন্দা গ্রামের বাসিন্দা কৃষকলীগ নেতা জামিল উদ্দিন, তাঁর বড় ভাই রেজাউল কমির, ছেলে মো. শিমুল আহম্মেদ, মো. রাব্বী, মো. আজিজুল হক। অন্যান্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলেও যাওয়ায় তাদের নাম পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। 

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা লিটন জানান, কুসুম্বী ইউনিয়ন আওয়ামী কৃষক লীগের কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় প্রায় চার বছর পর ত্রি বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন দলের জেলা কমিটির সভাপতি আলমগীর বাদশা। আর বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মুনজুরুল হক মুঞ্জু। 

সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন সমাপ্ত হওয়ার পর সন্ধ্যা সাতটার দিকে কাউন্সিলরদের নিয়ে দ্বিতীয় অধিবেশন কৃষক লীগের উপজেলা কমিটির সভাপতি এসএম আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে শুরু করা হয়। কিন্তু প্রথমেই সভাপতি পদে প্রার্থী জামিল উদ্দীন ও আব্দুর রাজ্জাকের মধ্যে বিরোধ মতবিরোধ চরম আকার ধারণ করে। একপর্যায়ে তাদের দু’জনকে নিয়ে জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ সমঝোতায় বসেন। কিন্তু এরইমধ্যে রাজ্জাকের কর্মী-সমর্থকরা জামিল উদ্দীনের সমর্থকদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এমন কি মুহূর্তের মধ্যে উভয়পক্ষের মধ্যে মারামারি শুরু হয়ে যায়। একপর্যায়ে কাউন্সিল স্থগিত করে জেলা ও উপজেরার নেতারা সম্মেলনের স্থান ত্যাগ করে চলে আসেন বলে জানান এই কৃষকলীগ নেতা। 

এদিকে হট্টগোল চলাকালে সম্মেলনের মঞ্চ ও বেশকিছু প্লাস্টিকের চেয়ার ভাঙচুর করা হয়। পাশাপাশি সেখানে অস্ত্রের মহড়াও দেয়া হয়। এছাড়া স্থানীয় লোকজন সংঘর্ষে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে দেন প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। 

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় উভয়পক্ষই লিখিত অভিযোগ করেছেন। এসব অভিযোগ তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:১০
প্রিন্ট করুন printer

বরিশালে ২৮৮ বোতল ফেন্সিডিলসহ যুবক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বরিশালে ২৮৮ বোতল ফেন্সিডিলসহ যুবক আটক

বরিশাল নগরীর পোর্ট রোডের ভূমি অফিস এলাকা থেকে ২৮৮ বোতল ফেন্সিডিলসহ এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব-৮। গতকাল রবিবার (২৪ জানুয়ারী) গভীর রাতে ফেন্সিডিলসহ আটক মো. সেরাজুল ইসলাম (২৯) নামে ওই যুবককে আটক করা হয়। আটক যুবক চাপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বিনোদনগর গ্রামের আলহাজ্ব মো. মোহর আলী মন্ডলের ছেলে। 

আজ সোমবার র‌্যাব-৮ প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল পোর্ট রোড ভূমি অফিস এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২৮৮ বোতল ফেন্সিডিলসহ সেরাজুলকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে কোতয়ালী মডেল থানায় সোপর্দ করে র‌্যাবের ডিএডি মো. আল মামুন শিকদার বাদী হয়ে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

 

বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫৪
প্রিন্ট করুন printer

করোনা ভ্যাকসিন সংরক্ষণে প্রস্তুত কুড়িগ্রাম জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

করোনা ভ্যাকসিন সংরক্ষণে প্রস্তুত কুড়িগ্রাম জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন কুড়িগ্রামে আসার আগেই জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ তা সংরক্ষণের জন্য সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে বলে জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ ও জেলা প্রশাসন জানিয়েছে।

আগামী ৮ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশের ন্যায় একযোগে কুড়িগ্রামেও ভ্যাকসিন প্রয়োগের কথা রয়েছে। প্রথম পর্যায়ে এ ভ্যাকসিন যাদেরকে দেয়া হবে সে তালিকা তৈরি করছে জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ।

কুড়িগ্রামে জেলা সদরের জেনারেল হাসপাতাল ও সদর উপজেলাসহ মোট ১০টি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এ ভ্যাকসিন দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত এসব কেন্দ্রের স্বাস্থ্যকর্মীরা তালিকা অনুযায়ী ভ্যাকসিন প্রয়োগ করবেন। ইতোমধ্যেই জেলা সিভিল সার্জন, ডেপুটি সিভিল সার্জন ও স্বাস্থ্য-পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালকসহ ৫জন ঢাকা থেকে ভ্যাকসিন প্রয়োগের প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন।

চলতি মাসের যেকোন দিন জেলার আড়াইশত শয্যার জেনারেল হাসপাতালসহ বাকি ৯ উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ৫০জন করে মোট সাড়ে ৪শতাধিক স্বাস্থ্যকর্মীকে প্রশিক্ষণ দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। 

জেলা সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান জানান, কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালসহ সদর উপজেলা ও অন্যান্য ৯ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে করোনার ভ্যাকসিন সংরক্ষণের জন্য সকল রকমের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। তবে আমরা কতটি ভ্যাকসিন প্রথম পর্যায়ে পাব তা এখনও নিশ্চিত না হলেও ৪ থেকে ৫ লাখ ভ্যাকসিন সংরক্ষণ করতে পারব বলে আমি আশা করি। তিনি আরো বলেন, আমরা কয়েকজন ঢাকা থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছি। আর অল্প সময়ের মধ্যে নির্দেশনা পাওয়ার পরপরই পর্যায়ক্রমে ওই সব কেন্দ্রের চিকিৎসক, নার্স, সেকমো,প.প পরিদর্শক ও স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষণ দেব আমরা। তারা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে অন্যদের প্রশিক্ষণ দেবেন এবং ভ্যাকসিন প্রয়োগে কাজ করবেন। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫০
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫২
প্রিন্ট করুন printer

বগুড়ায় এসআইয়ের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া:

বগুড়ায় এসআইয়ের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

৩৯ লাখ ১৩ হাজার ৮৭৭ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বগুড়া সোনাতলা থানার সাবেক এসআই আলমগীর হোসেন পিপিএম'র (৪৩) বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) মামলা দায়ের করেছে। দুদকের প্রধান কার্যালয়ের অনুমতিক্রমে রবিবার মামলা দায়ের করেন উপ-সহকারী পরিচালক সুদীপ কুমার চৌধুরী। 

অভিযুক্ত আলমগীর হোসেন সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার শৌলীসবলা এলাকার মৃত মবজেল হোসেনের ছেলে। তিনি বর্তমানে বগুড়া শহরের লতিফপুর এলাকায় বসবাস করছেন।

সোমবার বগুড়া জেলা দুদক কার্যালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এসআই আলমগীর হোসেন ১৯৯৭ সালে কনস্টেবল পদে পুলিশে যোগদান করেন। তিনি জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদের মালিক হয়েছেন- এমন তথ্যের ভিত্তিতে দুদক অনুসন্ধানে নামে। এরপর আলমগীর হোসেনের কাছে তার সম্পদের বিবরণী চায় দুদক। তিনি দুদকের কাছে তার ৭২ লাখ ৫১ হাজার ৭৮ টাকা সম্পদের মালিকানা অর্জনের ঘোষণা প্রদান করেন। সম্পদ বিবরণী যাচাইকালে তার নামে ৪৫ লাখ ২ হাজার ৭০১ টাকা গ্রহণযোগ্য আয় এবং ১৯৯৭ থেকে ২০১৯ এই ২২ বছরে ১১ লাখ ৬৫ হাজার ৫০০ টাকা ব্যয় পাওয়া যায়। ফলে পারিবারিক ব্যয়সহ তার মোট সম্পদ অর্জন ৮৪ লাখ ১৬ হাজার ৫৭৮ টাকা। 

এদিকে দুদক তদন্তকালে অভিযুক্ত আলমগীর হোসেনের জ্ঞাত আয়ের বাইরে আরও ৩৯ লাখ ১৩ হাজার ৮৭৭ টাকার সম্পদ অর্জন দেখতে পায়। যা দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৭ (১) ধারা অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

দুদক বগুড়া জেলা কার্যালয়ের উপ- সহকারী পরিচালক সুদীপ কুমার চৌধুরী জানান, জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৭ (১) ধারা অনুযায়ী এসআই আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সম্প্রতি এসআই আলমগীর হোসেন বগুড়ার সোনাতলা থানা থেকে বদলী হয়ে রাজশাহীর বাঘা থানায় গিয়েছেন। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৪৬
প্রিন্ট করুন printer

বগুড়ার ১০ মামলার আসামি ডাকাত সর্দার ঢাকা থেকে গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

বগুড়ার ১০ মামলার আসামি ডাকাত সর্দার ঢাকা থেকে গ্রেফতার

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ৯টি মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত ও একটি মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ডাকাত সর্দার বেলাল হোসেন (৪৫)-কে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। 

গতকাল রবিবার (২৪ জানুয়ারী) ঢাকার মিরপুর উত্তর মীরেরবাগ ছাপড়া মসজিদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে দীর্ঘদিন পলাতক ছিল। সে নন্দীগ্রামের রিধইল গ্রামের গ্রামের মুন্সির ছেলে।

বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, বগুড়া পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁঞা বিপিএম এর দিক নির্দেশনায় দীর্ঘদিন পলাতক থাকা ডাকাত সর্দারকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আজ সোমবার গ্রেফতারকৃত ডাকাত সর্দার বেলালকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারো প্রেরণ করা হয়েছে।

বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ইসলামের নেতৃত্বে এসআই চাঁন মিয়া, এএসআই আবুল কালাম আজাদসহ সঙ্গীয় ফোর্স অভিযানে অংশগ্রহণ করেন।


বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৪১
প্রিন্ট করুন printer

দিনাজপুরে পৃথক সড়ক ঘটনায় তিনজন নিহত

দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুরে পৃথক সড়ক ঘটনায় তিনজন নিহত

দিনাজপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছে এবং একটি তেলবাহি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে পড়েছে। 

ঘন কুয়াশার মাঝেই সোমবার সকাল ৯টার দিকে দিনাজপুর-পঞ্চগড় মহাসড়ক দিয়ে নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে আজিজার রহমান (৪২) শ্বশুর বাড়ি যাওয়ার পথে বীরগঞ্জের ২৫ মাইল নামক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়েছে।
অপরদিকে, একই সময়ে দিনাজপুর-সৈয়দপুর মহাসড়কের চম্পাতলি এলাকায় একটি তেলবাহি লড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে যায়। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।
অন্যদিকে, সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে হাকিমপুর উপজেলার হিলি-দলারদরগা রাস্তার বোয়ালদাড়ের বিশাপাড়া এলাকায় পিকআপের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নজরুল ইসলাম ও সাখাওয়াত হোসেন নিহত হয়েছে। 

নিহত আজিজার রহমান(৪২) বীরগঞ্জ উপজেলার ভোগনগর ইউপির এলায়গা এলাকার মনছুর আলী ছেলে এবং অপর নিহত মোটরসাইকেল আরোহীরা হলো, নজরুল ইসলাম (৫০) রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলার মোকসেদপুর বানিয়াপাড়ার মৃত জামালউদ্দিনের ছেলে এবং সাখাওয়াত হোসেন (২৪) একই এলাকার সেকান্দার আলীর ছেলে বলে জানা যায়।  

বীরগঞ্জের ভোগনগর চেয়ারম্যানের বদিউজ্জামান পান্না বলেন, ভোরে নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে নিহত আজিজার রহমান মাহানপুর এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে যাচ্ছিলেন। পথে দিনাজপুর-ঠাকুরগাও মহাসড়কের ২৫ মাইল এলাকায় অজ্ঞাত একটি পরিবহন তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। 
দশমাইল হাইওয়ে থানার ওসি ইয়ামিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সকালে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃত্যু ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তবে কোন গাড়ির চাপায় সে নিহত হয়েছেন সেই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ঘন কুয়াশার কারণেই সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। অপরদিকে ঘন কুয়াশার কারণে চম্পাতলি এলাকায় উল্টে যাওয়া তেলবাহি লড়িটি উদ্ধারের কাজ চলছে। ডিজেলবাহি লড়ি উল্টে যাওয়ায় সেখান থেকে বেশ কিছু তেল পড়ে যায়, পরে স্থানীয় ব্যক্তিরা সেই তেল নিতে হুড়াহুড়ি করে। তবে এঘটনায় কোন হতাহত হয়নি।

এদিকে, বিষয়টি নিশ্চিত করে হাকিমপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোস্তাফিজার রহমান বলেন, স্থানীয় মাধ্যমে জানতে পেরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দুইজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পিকআপটি জব্দ করা হয়েছে। 

তিনি আরও জানান, নিহত নজরুল ইসলাম ও সাখাওয়াত হোসেন হিলি বাজার থেকে মোটরসাইকেলের পার্টস নিয়ে বোয়ালদাড় হয়ে দলারদরগার দিকে নিজ গন্তেব্যে যাচ্ছিলো। এসময় তারা বোয়ালদাড়ের বিশাপাড়া নামক এলাকায় পৌছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই দু’জনের মৃত্যু হয়। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর