শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৬:৪২
প্রিন্ট করুন printer

বগুড়ায় বেড়েছে শীত, শীতবস্ত্র কেনা-বেচায় হিড়িক

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

বগুড়ায় বেড়েছে শীত, শীতবস্ত্র কেনা-বেচায় হিড়িক

হঠাৎ করেই যেন শীত ও কুয়াশা চেপে বসেছে বগুড়ায়। শীত যেমন বাড়ছে তেমনি বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা। দিনে শীত কম অনুভূত হলেও সন্ধ্যা থেকে বেশ শীত পড়ছে। সেই সাথে ঝিড়িঝিড়ি বৃষ্টির মত কুয়াশাও ঝড়ছে। শহরের মধ্যে কুয়াশার পরিমান কম হলেও শহরতলী ও গ্রামে বেশ কুয়াশার কুন্ডলী দেখা মিলছে। দূরের যাত্রীদের পরনের পোশাক কিছুটা ভিজে যাচ্ছে কুয়াশায়।

শীতের কারণে শহরের ফুটপাত ও হকার্সসহ বিভিন্ন মার্কেটে শীতবস্ত্র বিক্রির হিড়িক পড়েছে। একই সাথে বেড়েছে শীতজনিত রোগবালাই ও করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। 

জানা যায়, বগুড়ার শহরতলীতে দুপুর পর্যন্ত থাকছে কুয়াশায় আচ্ছন্ন। বেলা করে কুয়াশা থাকায় প্রতিদিনই তাপমাত্রার পারদ নিচের দিকে কমছে। নিম্ন আয়ের মানুষের দুর্ভোগ বেড়ে গেছে। সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষগুলো জড়সড় হয়ে পড়েছেন। দিনের বেলাও থাকছে প্রচন্ড শীত। শীতের কারণে শহরের ফুটপাত ও হকার্সসহ বিভিন্ন মার্কেটে শীতবস্ত্র বিক্রির হিড়িক পড়েছে। 

তবে শীতকে পুঁজি করে গার্মেন্ট ব্যবসায়ীরা পোশাকের দামও বাড়িয়ে দিয়েছেন কয়েকগুন। ৩০ টাকা থেকে শুরু করে বিভিন্ন দামে গরম পোষাক পাওয়া যাচ্ছে। গরম কাপড়গুলো মান ও দাম অনুযায়ী কিনছেন ক্রেতারা। দুস্থ ও নিম্ন আয়ের শীতার্ত মানুষদেরকে শহরের স্টেশন এলাকায় খড়কুটোয় আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করতে দেখা গেছে। এছাড়া শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় চারদিকে শীতজনিত রোগবালাই ছড়িয়ে পড়েছে। শিশু ও বৃদ্ধরা এই শীতজনিত রোগবালাইয়ে আক্রান্ত হচ্ছে বেশি। এদিকে দিন গড়িয়ে রাতে ক্রমেই বাড়তে থাকে কুয়াশা এবং বয়ে যাচ্ছে হিমেল হাওয়া। কুয়াশার দাপটে সকালে মহাসড়কে যানবাহনগুলো হেড লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে।

বগুড়া শহরের বনানী, ছিলিমপুর, চারমাথা এলাকার একাধিক যানবাহন চালক জানান, দিনের বেলাতেও হেড লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। দুপুরেও থাকছে কুয়াশা। অতিমাত্রার সাবধানতাই চলাচল করতে হচ্ছে। ফাঁকা স্থানগুলোয় কুয়াশার দাপটে গাড়ি চালানো কষ্টকর হয়েছে।

বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সামির হোসেন মিশু জানান, শীতের কারণে মানুষের নিউমোনিয়া, সর্দি, জ্বর, কাশি, আমাশয় রোগ দেখা দিতে পারে। এজন্য সাধারণ নাগরিকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ইতিমধ্যে ঠান্ডা রোগে আক্রান্ত হওয়ার সংবাদও পাওয়া যাচ্ছে। এর সাথে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে উল্লেখ্যযোগ্য হারে। 

বগুড়া জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানানো হয়েছে, ১৫ ডিসেম্বর ২০২ টি নমুনা পরীক্ষা করে বগুড়ায় নতুন করে ৩৩ জনের দেহে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছে ৯ হাজার ২৭০ জন। নতুন ২৬ জন নিয়ে জেলায় মোট সুস্থ হয়েছে ৮ হাজার ৩৮৭ জন। এ পর্যন্ত জেলায় মোট মৃত্যু হয়েছে ২১৫ জনের।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:৫০
প্রিন্ট করুন printer

'বগুড়ার উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার বিকল্প নাই'

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

'বগুড়ার উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার বিকল্প নাই'
সংগৃহীত ছবি

আসন্ন বগুড়া পৌরসভার সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী জনসংযোগে শুক্রবার নেতৃত্ব দিয়েছেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহন।

নির্বাচনী জনসংযোগ ও মিছিল বগুড়া শহরের বনানী হতে আরম্ভ হয়ে মাটিডালি সদর উপজেলা হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সাতমাথায় বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে মঞ্জুরুল আলম মোহন শেরপুর উপজেলায় সংক্ষিপ্ত পথসভায় বক্তব্য রাখেন।

বগুড়ায় আয়োজিত নির্বাচনী জনসংযোগ ও সমাবেশে মঞ্জুরুল আলম মোহন বলেন, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি সারাদিন বগুড়ার উন্নয়নে নৌকা মার্কায় ভোট দিন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা মনোনীত ও আওয়ামী লীগ মনোনীত যোগ্য প্রার্থী আবু ওবায়দুল হাসান ববিকে নৌকা মার্কায় বিজয়ী করে বগুড়া শহরের সুষম উন্নয়নে অংশ নিন। 

আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাড. রেজাউল করিম মন্টুর সভাপতিত্ব ও অসীম কুমার রায়ের সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যান্য মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক আল-রাজী জুয়েল, সদস্য অধ্যক্ষ সহিদুল ইসলাম দুলু, সোহরাব হোসেন ছান্নু, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রফি নেওয়াজ খান রবিন, সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু ওবায়দুল হাসান ববি, জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, শহর যুবলীগের সভাপতি মাহফুজুল আলম জয়, সাধারণ সম্পাদক উদয় কুমার বর্মন, শেরপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তারিকুল ইসলাম তারেক, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান ভুট্টো, শাজাহানপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ভিপি এম সুলতান আহমেদ, ধনুট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া খন্দকার, শেরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা, শাজাহানপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রঞ্জু, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ওবায়দুল্লাহ সরকার স্বপন, আজিজুল হক কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রউফ, শাহ সুলতান কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকিউল ইসলাম জনি প্রমুখ।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:৪৭
প্রিন্ট করুন printer

মিটার চুরি করে বিকাশে টাকা নিয়ে ফেরত দিচ্ছেন চোর চক্র!

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর:

মিটার চুরি করে বিকাশে টাকা নিয়ে ফেরত দিচ্ছেন চোর চক্র!

রংপুরের পীরগঞ্জে গত এক সপ্তাহে গভীর নলকুপ ও মিল-চাতালের কমপক্ষে ১২টি মিটার চুরি হয়েছে। চোরদের দাবি অনুযায়ী বিকাশে টাকা দিয়ে চুরি হওয়া মিটার ফেরত এনেছেন কেউ কেউ। চুরি যাওয়া মিটারের আওতায় চলতি বোরো মৌসুমে এলাকার অনেক কৃষক ক্ষেতে পানি সেচ নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন। এ ব্যাপারে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

চুরি হওয়া মিটারের মালিকদের সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাতে উপজেলার হরিপুর সিনিয়র মাদ্রাসা, হরিপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও হরিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তিনটি মিটার এবং ১৮ ফেব্রুয়ারি রাতে উপজেলার প্রাণনাথপুর, হরিপুর ও পঁচারপাড়া এলাকায় মিজানুর রহমানের গভীর নলকূপের মিটার, হারুন মিয়ার একটি, কাইয়ুম মিয়ার দুইটি, রঞ্জু মিয়ার একটি ও আব্দুল জলিলের একটিসহ মোট নয়টি গভীর নলকূপের বৈদ্যুতিক মিটার চুরি গেছে। গভীর রাতে মিটারগুলো চুরি হয়। ওই সময় এলাকায় বিদ্যুৎ থাকে না বলে অভিযোগ করা হয়। এ ব্যাপারে ১৯ ফেব্রুয়ারি পীরগঞ্জ থানায় পৃথক পৃথক সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। এর সপ্তাহখানেক আগে গুর্জিপাড়া বাজার থেকে আব্দুল কাফি মিয়ার একটি, ফারুক মিয়ার একটি ও আবু তাহের মন্ডলের একটি মিল-চাতালের বৈদ্যুতিক মিটার, জগদিশ চন্দ্রের ছ’মিল, ইঞ্জিল মিয়া ও একরামুল মিয়ার গভীর নলকুপের মিটারও চুরি হয়ে যায়। 

হরিপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলাম, প্রাণনাথপুরের শহিদুল ইসলাম ও পঁচারপাড়ার সাগর মিয়া জানান, মিটার চুরি যাওয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হযে পড়ায় তারা জমিতে পানি সেচ দিতে পারছেন না। পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে হয়রানিসহ নতুন করে ১০ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত জামানত গুনতে হবে তাদের। তবে মিটার চোররা ভুক্তভোগীদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে বিকাশের মাধ্যমে তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকার বিনিময়ে চুরি যাওয়া মিটার ফেরত দিচ্ছে। পীরগঞ্জ থানায় চোরের মোবাইল নম্বরসহ বিকাশ নম্বর দিয়ে একাধিক সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। 
তবে ভেন্ডাবাড়ী পল্লী বিদ্যুৎ সাব-জোনাল অফিস ইনচার্জ (এজিএম) মমিমুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগীদের বক্তব্য ঠিক নয়। তবে প্রমাণ পেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

পীরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মাহবুবার রহমান জানান, মিটার চোরদের ধরতে সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:২৭
প্রিন্ট করুন printer

মুরাদনগরে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ আওয়ামী লীগ সভাপতি

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

মুরাদনগরে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ আওয়ামী লীগ সভাপতি

কুমিল্লার মুরাদনগরে মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই-বাছাইয়ে বাদ পড়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ পাঁচজন। তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন, উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের রহিমপুর গ্রামের সুলতান আহম্মদের ছেলে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ আহাম্মদ হোসেন আউয়াল, ঘোড়াশাল গ্রামের আছমত আলী সরকারের ছেলে মজিবুর রহমান, সাহেবনগর গ্রামের করম আলীর ছেলে খলিলুর রহমান, নহল গ্রামের মুন্সি আজগর আলীর ছেলে আবদুল মতিন ও বাংগরা গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম। 

গত ১৮ জানুয়ারি উপজেলা পরিষদের কবি নজরুল মিলনায়তনে ওই ২২৩ জন গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে যাচাই-বাছাই শুরু হয়। যাচাই-বাছাই শেষে বাছাই কমিটির সকল সদস্যের স্বাক্ষর সম্বলিত যাচাই-বাছাইয়ের প্রতিবেদন গত বৃহস্পতিবার মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়। তবে সকল ব্যাপারে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় ও জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন বাছাই কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হানিফ সরকার।

মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ পড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ আহাম্মদ হোসেন আউয়ালের কাছে এবিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোন প্রকার বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:৪৬
প্রিন্ট করুন printer

সূর্যমুখীর সাথে শত্রুতা!

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

সূর্যমুখীর সাথে শত্রুতা!

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের ওয়ালিদ মিয়ার সূর্যমুখী ফসলের পাঁচ শতক জমি নষ্ট করেছে একদল দুর্বৃত্ত। জমিটি কলাকান্দি ইউনিয়নের মাছিমপুর কলাকান্দি সড়কের উত্তর পাশে অবস্থিত।

বৃহস্পতিবার রাতের কোন এক সময় কে বা কারা সূর্যমুখী গাছ কেটে ফেলে। পাঁচ শতক জমির ফসল বিনষ্ট করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জমির মালিকের ছেলে টুটুল। 

টুটুল বলেন, প্রায় ১৮০ শতক জমিতে এই ফুলের চাষ করেছি। অনেক শখ করে সূর্যমূখীর চাষ করেছিলাম। রাস্তার পাশে হওয়ায় প্রতিদিন অসংখ্য দর্শনার্থী ভিড় করে। তারা ছবি ও সেলফি তোলে। ফসলের সাথে শত্রুতা করে কি লাভ? 


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:৪৪
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:৫৭
প্রিন্ট করুন printer

নাটোরে করোনা টিকা রেজিস্ট্রেশন ক্যাম্পের উদ্বোধন

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে করোনা টিকা রেজিস্ট্রেশন ক্যাম্পের উদ্বোধন

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির হিসেবে নাটোরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ পৌর শাখার উদ্যোগে  নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্যদের কোভিড ১৯ ভ্যাকসিনের ফ্রি রেজিস্ট্রেশন ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে শহরের ভবানীগন্জ মোড়ে পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসান শুভর ব্যক্তিগত উদ্যোগে করোনা ভ্যাকসিনের ফ্রি রেজিষ্ট্রেশন ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।  ক্যাম্পে শতাধিক মানুষের অনলাইন রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহম্মেদ সেলিম, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম সুক্কু, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মলয় রায়। 

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর