শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৩:৩১
আপডেট : ২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৫:৪২
প্রিন্ট করুন printer

ট্রেন চালকের ভুলে প্রাণ গেল গেইট কিপারের

দিনাজপুর প্রতিনিধি

ট্রেন চালকের ভুলে প্রাণ গেল গেইট কিপারের

কয়েকদিন আগে জয়পুরহাটে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে ১২ জন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সেই রেশ কাটতে না কাটতে এবার দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ট্রেন ও ট্রাক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সুশান্ত কুমার দাস (৩২) নামে এক গেইট কিপার নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ট্রাক চালক সাইদুল ইসলাম (৩৪)। 

নিহত গেইট কিপার সুশান্ত কুমার দাস পাবনার ঈশ্বরদী এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেছে। ট্রাক চালক সাইদুল ইসলাম নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর উপজেলার কফিলউদ্দিন মন্ডলের ছেলে। 

সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে ফুলবাড়ী পৌর শহরের ফুলবাড়ী-পাবর্তীপুর সড়কের রেলগুমটি নামকস্থানে রেল ক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর প্রায় ৫ ঘণ্টা রেল যোগাযোগ বন্ধ ছিল। 

মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে গেইট কিপার সুশান্তের লাশ দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাকের নিচ থেকে উদ্ধার করে পার্বতীপুর জিআরপি থানা পুলিশ।

ফুলবাড়ী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার ইসরাফিল সরকার জানান, সোমবার দিবাগত রাত ১টা ৪ মিনিটে বিরামপুর থেকে ছেড়ে আসা ২৩ আপ রকেট মেইল নামক ট্রেন ফুলবাড়ী স্টেশনের ১নং লাইনে প্রবেশ করে। কিন্তু এর ১ মিনিট পরে ১টা ৫ মিনিটে স্টেশনের অনুমতি না নিয়ে এমজিবিসি নামক মালবাহী ট্রেনটি স্টেশনের ১নং লাইনে প্রবেশের চেষ্টা করে। ট্রেনটি পার্বতীপুর থেকে মাল নিয়ে ঢাকা যাচ্ছিল। স্টেশন থেকে ৫০০ গজ উত্তর দিকে ফুলবাড়ী রেলগুমটি নামকস্থানে ঠাকুরগাঁও থেকে বগুড়াগামী ধান বোঝাই ট্রাকটি ২৫৪ বস্তা ধান নিয়ে ওই রেল ক্রসিং পার হতে গেলে ট্রেনটি ট্রাকটিকে ধাক্কা দেয়। দুর্ঘটনার সময় ওই এলাকায় প্রচন্ড কুয়াশা ছিল। এতে ট্রাকটি ছিটকে রাস্তার সাইডে গিয়ে পড়ে। এ সময় ট্রাক চালক সাইদুল ইসলাম সামান্য আহত হন। 

মঙ্গলবার সকাল ৭টায় ক্রেন যোগে দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাকটি সড়ানোর সময় ট্রাকের নিচে গেইট কিপার সুশান্ত কুমার দাসের লাশ পাওয়া যায়। দুর্ঘটনার পর থেকে ৫ ঘণ্টা ওই রেল লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। পরে ২৩ আপ রকেট মেইল নামক ট্রেনটি ভোর ৬টা ১০ মিনিটে ২নং লাইন দিয়ে ছেড়ে যায়। সকাল ৮টায় মালবাহী ট্রেনটি লাইন থেকে সরিয়ে নেয়ার পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। 

তিনি আরও জানান, যেহেতু এমজিবিসি মালবাহী ট্রেনটি স্টেশনে প্রবেশের অনুমতি ছিল না, তাই গেইট কিপার রেলগেইট সিগন্যালটি নামায়নি। সেই সময় ওই রেলগেইট দিয়ে কোনো ট্রেন যাওয়ার কথা ছিল না। ট্রেন চালকের ভুলের কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছিল বলে প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি। যদি এমজিবিসি ট্রেনটি স্টেশনের ১নং লাইনে প্রবেশ করতো তাহলে একটা বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতো বলে তিনি জানান। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর