শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:১১
প্রিন্ট করুন printer

কিশোরগঞ্জে হত্যার দায়ে বাবার যাবজ্জীবন, ছেলের ফাঁসি

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:

কিশোরগঞ্জে হত্যার দায়ে বাবার যাবজ্জীবন, ছেলের ফাঁসি

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আমিনুল হক হত্যা মামলায় এক আসামিকে ফাঁসি এবং তার বাবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আবদুর রহিম এ রায় প্রদান করেন। 

রায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামির প্রত্যেককে দুই লাখ টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে অতিরিক্ত এক বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। 

রায় প্রদানের সময় ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত আসামি মানিক পলাতক, তার পিতা যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজাপ্রাপ্ত আসামি নূরুল করীম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। আসামিদের বাড়ি হোসেনপুর উপজেলার জিনারী ইউনিয়নের গাবুরগাও গ্রামে। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, হত্যার শিকার আমিনুল হকের বাড়ি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার মহিষজোড়া গ্রামে। তিনি হোসেনপুরে জিনারী গ্রামে একটি দাখিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ হিসাবে চাকুরী সূত্রে বসবাস করতেন। ২০০৯ সালের ১৪ ডিসেম্বর আমিনুল হকের ছেলে রক্সি প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার সময় ক্রিকেট খেলা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে মানিক নামে স্থানীয় এক যুবক রক্সিকে মারধর করে বাড়িতে নিয়ে বেধে রাখে। খবর পেয়ে রক্সির পিতা আমিনুল হক ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এ নিয়ে কথা কাটাকাটি শুরু হলে মানিক ও তার পিতা নূরুল করীম তার উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে আমিনুল হককে মারধর এবং ধারালো ছোরা দিয়ে বুকে আঘাত করে। গুরুতর আহত আমিনুল হককে প্রথমে জেলা সদরের ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৭ ডিসেম্বর তার মৃত্যু হয়। 

এ ঘটনায় নিহতের ভাই ফজলুল হক বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে হোসেনপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ তদন্ত শেষে দুইজনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দাখিল করে।  

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য