শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ মে, ২০২১ ০৯:১৭
আপডেট : ১১ মে, ২০২১ ১০:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

দেবিদ্বারে আম পাড়া নিয়ে বৃদ্ধ দম্পতিকে কোপাল ভাতিজা

কুমিল্লা প্রতিনিধি

দেবিদ্বারে আম পাড়া নিয়ে বৃদ্ধ দম্পতিকে কোপাল ভাতিজা
মারধর করার দৃশ্য (বাঁমে) ও গ্রেফতার মো. কামরুল হাসান।
Google News

কুমিল্লার দেবিদ্বারে আম পাড়াকে কেন্দ্র করে এক বৃদ্ধ দম্পতিকে প্রকাশ্যে দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। পুলিশ মো. কামরুল হাসান (৩০) নামের ওই হামলাকারীকে গ্রেফতার করে।

সোমবার অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে কারগারে প্রেরণ করা  হয়েছে। দেবিদ্বার উপজেলার ১২ নম্বর ভানী ইউনিয়নের কটকসার গ্রামের হাবিবুর রহমানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই বাড়ির হারুন-অর-রশিদের ছেলে মো. ওমর ফারুক (৪০), কামরুল হাসান (৩০) এবং ওমর ফারুকের স্ত্রী পারভীন আক্তার (৩০) প্রকাশ্যে দা দিয়ে কুপিয়ে, বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে মো. হাবিবুর রহমান (৭০) ও তার স্ত্রী আসমা (৬০) নামে এক বৃদ্ধ দম্পতিকে। হামলাকারীরা সম্পর্কে আহত মো. হাবিবুর রহমানের দুই ভাতিজা ও এক ভাতিজার স্ত্রী।

ওই ঘটনায় গত রবিবার রাতে প্রবাসী গোলাম রাব্বানীর স্ত্রী আহত তাছলিমা বেগম বাদী হয়ে হারুন-অর-রশিদের ছেলে মো. ওমর ফারুক, কামরুল হাসান এবং ওমর ফারুকের স্ত্রী পারভীন আক্তার ও আরো দুজন নারীসহ পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে দেবিদ্বার থানায় মামলা দায়ের করেন।

আহত দম্পতির ছেলে কুয়েত প্রবাসী গোলাম রাব্বানী ফোনে বলেন, বাবার একমাত্র সন্তান আমি। আমার চাচা হারুনুর রশিদের পাঁচ ছেলে। বাড়িতে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে এবং পূর্ব থেকেই আমার চাচা আমার বাবার মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। সেই ঘটনার জের ধরে আমার বৃদ্ধ বাবা-মাকে এবং স্ত্রী তাসলিমা বেগমের উপর হামলা করে।

দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আরিফুর রহমান বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে কয়েকজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। কামরুল নামের একজনকে গ্রেফতার করি। বাকিদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর