শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২২:৫৭

ভাষার দিনে খালেদাকে মুক্ত করার শপথ ফখরুলের

স্বজনদের সাক্ষাৎ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ভাষার দিনে খালেদাকে মুক্ত করার শপথ ফখরুলের

গণতন্ত্রহীন অবস্থায় দেশ চলছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষাশহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের কাছে  বর্তমান অবস্থা তুলে ধরতে গিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন। মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে এই মহান দিবসে আমরা এটা বলতে বাধ্য হচ্ছি যে, দেশে গণতন্ত্র নেই। দেশের মানুষের অধিকার হরণ করা হয়েছে। আইনের শাসন নেই। এখানে কোনো ন্যায়বিচার নেই। আমরা এ গণতন্ত্র ও দেশনেত্রীকে মুক্ত করার জন্য আজকের এই দিনে শপথ নিচ্ছি। এ দেশে ইনশা আল্লাহ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবই। বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবই ইনশা আল্লাহ। এদিকে গতকাল বিকালে বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন তাঁর ছোট ভাই শামীম এস্কান্দারসহ পাঁচ স্বজন। শামীম এস্কান্দার ছাড়া অন্যরা হলেন তার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা ও ছেলে অভীক এস্কান্দার, প্রয়াত ভাই সাইদ এস্কান্দারের ছেলে শাফিন এস্কান্দার ও সেজ বোন সেলিমা ইসলামের ছেলে শাহরিয়া হক। বিকাল সোয়া ৩টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কেবিন ব্লকে কারাবন্দী খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য তারা প্রবেশ করেন। সোয়া এক ঘণ্টা এই সাক্ষাৎ শেষে বেরিয়ে যাওয়ার সময় স্বজনদের কেউ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেননি। পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে গত বছরের ১ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে এ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে বুধবার খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বিদেশে চিকিৎসার জন্য তাঁর জামিন চেয়ে হাই কোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কে এম জহিরুল হকের বেঞ্চে আবেদন করেন। সে বেঞ্চে শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে আগামীকাল রবিবার। কারাবন্দী দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গ টেনে মির্জা ফখরুল বলেন, দুর্ভাগ্য আমাদের, গণতান্ত্রিক চেতনার ওপর ভিত্তি করে এ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। সেই গণতান্ত্রিক চেতনার ওপর ভিত্তি করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মা বেগম খালেদা জিয়াকে আজকে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে। এ দেশের সংবিধান অনুযায়ী তাঁর ন্যূনতম প্রাপ্য জামিনও তাঁকে দেওয়া হচ্ছে না।

সকাল সাড়ে ৬টায় বলাকা সিনেমা হলের কাছে সমবেত হয়ে বিএনপি মহাসচিবের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীরা প্রথমে আজিমপুর কবরস্থানে ভাষাশহীদদের কবর জিয়ারত করেন। এরপর প্রভাতফেরি করে সকাল সাড়ে ৮টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এ সময় দলের কেন্দ্রীয় নেতা আবুল খায়ের ভুঁইয়া, আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, শামা ওবায়েদ, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, শামীমুর রহমান শামীম, সেলিম রেজা হাবিব, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনর অধ্যাপক হারুন আল রশিদ, অধ্যাপক আবদুস সালাম, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, জাসাস নেতা সালাউদ্দিন ভুঁইয়া শিশির, শায়রুল কবির খান, জাকির হোসেন রোকন এবং সদ্যসমাপ্ত ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল, ইশরাক হোসেন; অধ্যাপক এ বি এম ওবায়দুল ইসলাম, অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খান, অধ্যাপক লুৎফুর রহমান, অধ্যাপক সিদ্দিকুর রহমানসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর