Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০৭:১০

ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলে বাড়ছে নিহত ও নিখোঁজের সংখ্যা

অনলাইন ডেস্ক

ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলে বাড়ছে নিহত ও নিখোঁজের সংখ্যা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার উত্তরাঞ্চলে মার্কিন ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলে নিখোঁজের সংখ্যা ১৩০০ ছাড়িয়ে গেছে। ইতিমধ্যে ভয়াবহ এই দাবানলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৬ জনে।

প্রথম দিকে নিখোঁজের সংখ্যা তিনশ' বলে ঘোষণা করা হলেও এখন প্রতিদিনই তা বাড়ছে।গতকালও ঘোষিত এ সংখ্যা ছিল এক হাজারের মতো। 

এদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবানল শুরুর প্রায় এক সপ্তাহ পর ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। দাবানলে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেছেন।

এক সপ্তাহ আগে শুষ্ক আবহাওয়া ও ঝোড়ো বাতাসের কারণে বনাঞ্চল থেকে সৃষ্ট দাবানল দ্রুত দেশটির জনবসতিতেও ছড়িয়ে পড়ে। এর ফলে প্যারাডাইস শহর পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে।ঘর ছাড়া হয়েছে হাজার হাজার মানুষ। দাবানলে নিহতদের বেশিরভাগই প্যারাডাইস শহরের বাসিন্দা বলে জানানো হয়েছে। এখনও পুরোপুরি আগুন নেভানো সম্ভব হয় নি।

ক্যালিফোর্নিয়ার বন ও আগুন নির্বাপক বিভাগের মুখপাত্র স্কট ম্যাক্লিন বলেন, শহরটি ধ্বংস হয়ে গেছে, সবকিছু শেষ, কিছুই আর বাকি নেই তেমন। প্যারাডাইস শহরে তাণ্ডব চালনোর পর দাবানল আঘাত হানে ক্যালিফোর্নিয়ার আরেক সৈকত শহর মালিবুরে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে ভয়াবহ দাবানলের ঘটনায় বনবিভাগের দুর্বল ব্যবস্থাপনাকে দায়ী করেছেন। 

দাবানল নিয়ন্ত্রণে আনতে পায় দশ হাজার দমকলকর্মী কাজ করছেন। নিখোঁজ ব্যক্তিদের খোঁজে বের করতেও কাজ করছে শত শত কর্মী। 

দাবানলে অঙ্গরাজ্যের লাখ লাখ একর ভূমি পুড়ে গেছে। এর আগে ১৯৩৩ সালে লসঅ্যাঞ্জেলেসের গ্রিফিত পার্কে ভয়াবহ দাবানলে ২৯ জন নিহত হয়েছিল। চলমান দাবানলের ক্ষয়ক্ষতির জন্য প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প স্থানীয় কর্তৃপক্ষের অব্যস্থাপনাকে দায়ী করেছেন।

বিডি প্রতিদিন/১৯ নভেম্বর ২০১৮/আরাফাত


আপনার মন্তব্য