শিরোনাম
প্রকাশ : ২ জুলাই, ২০২০ ২০:৫৫
আপডেট : ২ জুলাই, ২০২০ ২২:২৪

'ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী'র নতুন নাম 'গ্লো অ্যান্ড লাভলী'

অনলাইন ডেস্ক

'ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী'র নতুন নাম 'গ্লো অ্যান্ড লাভলী'

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের মধ্যে বহুজাতিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ইউনিলিভারের ভারতীয় ইউনিট পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, তাদের বহুল বিক্রিত 'ত্বক ফর্সাকারী' ক্রিম ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী থেকে 'ফেয়ার' শব্দটি বাদ দিয়েছে। এখন থেকে এই প্রসাধনী সামগ্রীটির নতুন নাম হবে 'গ্লো অ্যান্ড লাভলী'।

এছাড়াও পুরুষদের জন্য ইউনিলিভারের 'ত্বক ফর্সাকারী' ক্রিমের নাম 'ফেয়ার অ্যান্ড হ্যান্ডসাম' বদলে হচ্ছে 'গ্লো অ্যান্ড হ্যান্ডসাম'। খবর রয়টার্সের।

বৃহস্পতিবার হিন্দুস্তান ইউনিলিভারের এক ঘোষণায় এ তথ্য জানানো হয়।
 
এ ধরনের শব্দ স্পষ্টতই কালো ত্বকের মানুষকে হেয় করার বার্তাবহন করে এবং 'ত্বক ফর্সাকারী' পণ্যগুলোর বিজ্ঞাপন এক ধরনের বর্ণবাদী প্রচারণা- 'ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার' আন্দোলনের জাগরণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কসমেটিক কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে এমন সমালোচনা দিন-দিন বাড়ছে।

এরই প্রেক্ষিতে গত সপ্তাহে হিন্দুস্তান ইউনিলিভারের চেয়ারম্যান সঞ্জীব মেহতা এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, "আমরা আমাদের স্কিন কেয়ার পোর্টফোলিওকে আরও বিস্তৃত... সৌন্দর্যের আরও একটু বৈচিত্র্যময় রূপে সাজিয়ে তুলতে চাচ্ছি"।

আরেক বিবৃতিতে ইউনিলিভারের বিউটি অ্যান্ড পারসোনাল কেয়ার ডিভিশনের প্রেসিডেন্ট সানি জাইন বলেছিলেন, 'ফেয়ার', 'হোয়াইট' ও 'লাইট' শব্দগুলোকে সৌন্দর্যের একটি নির্দিষ্ট ধরনের অর্থ হিসেবে আমরা ধরে নিতে অভ্যস্ত; অথচ সেটা ঠিক নয়। আমরা সেটা বোঝাতে চাই।

'সৌন্দর্য বর্ধন' বা 'ত্বক ফর্সাকারী' ক্রিম হিসেবে দক্ষিণ এশিয়ায় ইউনিলিভারের 'ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী'র বাজার অনেক বড়।

হিন্দুস্তান ইউনিলিভার জানিয়েছে, ব্র্যান্ড নেম পরিবর্তনের জন্য এক সপ্তাহ ধরে নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদনের অপেক্ষায় ছিল তারা।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর