শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪৬

ভারতে এবার কৃষকরা অনশনে বন্ধ করা হয়েছে ইন্টারনেট

কৃষকদের অবস্থানে সংঘবদ্ধ গোষ্ঠীর হামলার ঘটনাও ঘটেছে

সরকার আপাতত সম্প্রতি পাস হওয়া তিনটি কৃষি আইনকেই স্থগিত রাখতে চাইছে। কিন্তু কৃষকরা তাতে সম্মত না। তাদের দাবি সব আইনেই বাতিল করতে হবে। আর এই দাবিতে দুই মাসের বেশি সময় ধরে দিল্লিতে আন্দোলন বিক্ষোভ করছে কৃষকরা। ২৬ জানুয়ারি ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লির প্রাণ লাল দুর্গে হানা দেয় কৃষকরা। এবার তারা গণঅনশন শুরু করেছেন। গতকাল দিল্লি সীমান্তের কয়েকটি স্থানে এক দিনের এই কর্মসূচি শুরু হয়। বিক্ষোভ শুরুর পর এসব এলাকায় মোবাইল ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। বিতর্কিত তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে গত দুই মাস ধরে বিক্ষোভরত কৃষকরা গত সপ্তাহে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লিতে ট্রাক্টর র‌্যালির আয়োজন করে। হাজার হাজার কৃষক দিল্লি অভিমুখে র‌্যালি নিয়ে রওনা দিলে বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ শুরু হয়। ওই সংঘাতের জন্য কৃষকদের দায়ী করে তাদের দিল্লি সীমান্ত থেকে সরিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে কৃষকদের অবস্থানে সংঘবদ্ধ গোষ্ঠীর হামলার ঘটনাও ঘটেছে। এমন প্রেক্ষাপটে গতকাল দিল্লি সীমান্তে অবস্থানরত কৃষকরা এক দিনের গণঅনশন কর্মসূচি পালন শুরু করে। স্থানীয় সময় গতকাল বেলা ১১টা থেকে আজ একই সময় পর্যন্ত এই কর্মসূচি পালন করা হবে। কৃষকদের কর্মসূচি শুরুর আগেই ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক ঘোষণায় বলা হয়, দিল্লি সীমান্তবর্তী এসব এলাকায় বন্ধ থাকবে মোবাইল ইন্টারনেট সেবা। জননিরাপত্তা বজায় রাখার ঘোষণা দিয়ে এই সেবা বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কৃষক বিক্ষোভের অন্যতম কেন্দ্র হয়ে ওঠা দিল্লির সিঙ্ঘু সীমান্তে গতকাল মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল পুলিশ সদস্য। এদিন সেখানে নতুন করে হাজার হাজার ট্রাক্টর নিয়ে এসে যোগ দিয়েছে কৃষকরা। কৃষক নেতারা বলছেন, ভারতের স্বাধীনতার মহান নেতা মহাত্মা গান্ধীর মৃত্যুবার্ষিকীতে গণঅনশন পালন করা হবে শান্তিপূর্ণভাবে।


আপনার মন্তব্য