শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ আগস্ট, ২০২১ ২৩:৪৬

আমেরিকা কেন কোনো প্রতিরোধ গড়ে তুলল না?

আমেরিকা কেন কোনো প্রতিরোধ গড়ে তুলল না?
Google News

আমেরিকার সেনা ফিরল। কিন্তু ফিরল না আফগানদের ভাগ্য। তাঁরা যে তিমিরে ছিলেন, সেখানেই পড়ে রইলেন। রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হলো না! আর বিশ্ববাসী দেখল আমেরিকা আফগানিস্তানে ২০ বছর যুদ্ধ চালিয়ে শেষ মুহূর্তে তল্পিতল্পা গুটিয়ে পালিয়ে গেল। যে ভাবে ১৯৭৫ সালে ভিয়েতনাম থেকে পালিয়েছিল। আফগানিস্তানের বর্তমান যে অবস্থা তার অন্যতম কারণ আমেরিকা। ভবিষ্যতে যা ঘটবে, তার দায়ও আমেরিকাকেই নিতে হবে। ২০০১ সালের পর কাতারে আমেরিকার সঙ্গে আলোচনা করতে চেয়েছিল তালেবান। তখন আলোচনায় যায়নি আমেরিকা। লক্ষ্য ছিল ওসামা বিন লাদেন।  কিন্তু সেটাও খুব বড় কিছু নয়। ক্রমে সেই সত্যিটা প্রকাশ্যে এসে পড়ছিল। তার ওপর এলো করোনা। প্রবল অর্থনৈতিক চাপ তৈরি হলো আমেরিকার ওপর। যুদ্ধের খরচ টানা কার্যত অসম্ভব হয়ে পড়ল। সেই কারণেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের সময়ে সেনা প্রত্যাহারের ধীর গতি হঠাৎ বেড়ে গেল জো বাইডেন আসার পর। যুদ্ধের বিপুল খরচ তাদের পক্ষে চালানো সম্ভব নয়। আর চালিয়েই বা কী হবে? আমেরিকা ভেবেছিল, আফিম চাষের বিপুল টাকা তাদের হাতে আসবে। কিন্তু তা হয়নি।

কিছুটা টাকা পেলেও আশানুরূপ আফিমের লাভ আমেরিকার ঝুলিতে আসেনি। তার ওপর বিপুল পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এতদিনের লড়াইয়ে। আল-কায়েদাকে শায়েস্তা করার একটা লক্ষ্য আমেরিকার ছিল। তা এত দিনে পূর্ণ হয়ে গিয়েছে। তালেবানও আল-কায়দাকে সামনের সারিতে না আনার শর্তে রাজি হয়েছে। এর পর তো নতুন করে আমেরিকার কিছু পাওয়ার নেই।