শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০৩

পা হারানো রাসেলের সঙ্গে সমঝোতা হয়নি গ্রিনলাইনের

নিজস্ব প্রতিবেদক

পা হারানো রাসেলের সঙ্গে সমঝোতা হয়নি গ্রিনলাইনের

গ্রিনলাইনের বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটকারচালক রাসেল সরকারকে ক্ষতিপূরণ ও চাকরি দেওয়ার বিষয়ে কোনো সমঝোতা বা বৈঠক করেনি পরিবহন কর্তৃপক্ষ। গতকাল আদালতে এ তথ্য জানান রাসেলের আইনজীবী। এ মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেছে হাই কোর্ট। গতকাল বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ শুনানির নতুন তারিখ ঠিক করে। আদালতে রাসেলের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার সামসুল হক রেজা। গ্রিনলাইন পরিবহনের কর্তৃপক্ষের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী হারুনর রশিদ। ২০১৮ সালের ২৮ এপ্রিল মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে কথাকাটাকাটির জেরে গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসচালক ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাইভেটকারচালক রাসেলের ওপর দিয়ে বাস চালিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই রাসেলের বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

২০১৮ সালের ১২ মার্চ রাসেল সরকারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল হাই কোর্ট। একই সঙ্গে রাসেলের চিকিৎসা-সংক্রান্ত যাবতীয় খরচ গ্রিনলাইন পরিবহন কর্তৃপক্ষকে বহন করতে এবং তার কৃত্রিম পা লাগানোর ব্যবস্থা করতে বলা হয়। এরপর রাসেলকে ৫ লাখ টাকার চেক ও তার কৃত্রিম পা সংযোজন করে পরিবহন কর্তৃপক্ষ। এরই ধারাবাহিকতায় রাসেলকে গ্রিনলাইনের পক্ষ থেকে চাকরির প্রস্তাব দেওয়া হয়। সেই প্রস্তাব নাকচ করেন রাসেল।

 এরপর গ্রিনলাইন থেকে জানানো হয় যে, রাসেলের সঙ্গে তাদের কোনো সমঝোতা হয়নি।


আপনার মন্তব্য