৩০ মার্চ, ২০২২ ১৯:০৮

বিমানবন্দরে কোন কর্মকর্তা খারাপ আচরণ করলে ছবি তুলে পাঠিয়ে দিন, প্রবাসীদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

বিমানবন্দরে কোন কর্মকর্তা খারাপ আচরণ করলে ছবি তুলে পাঠিয়ে দিন, প্রবাসীদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মালয়েশিয়ায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিমানবন্দরে কেউ হয়রানি করলে তার ছবি তুলে পাঠিয়ে দিতে বলেছেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বিমানবন্দরে আপনাদের নানা রকম হয়রানির কথা শুনি। আমি আপনাদের বলে যাচ্ছি, বিমানবন্দরে কোন কর্মকর্তা যদি আপনাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করে, হয়রানি করে, ঐ কর্মকর্তার পরিচয় টুকু জেনে নিবেন এবং আপনার হাতে থাকা হ্যান্ডফোনে তার ছবি খানা তুলে আমার কাছে লিখিত ভাবে পাঠিয়ে দিবেন।’

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘২৬শে মার্চ আমাদের স্বাধীনতা দিবস স্বাধীনতার দিন । জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান আমাদের একটি দেশ দিয়ে গেছেন, যিনি এ দেশকে খুব ভালোবাসতেন । তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা তাঁর আঁচল দিয়ে পুরো দেশকে পরম মমতায় আগলে রেখেছেন । দেশের উন্নয়নে দিন রাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে একটি বিশেষ মহল দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র  ও অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সকলকে সজাগ থাকতে হবে।’

মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদ বীর-মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে দোয়া, ১মিনিট নীরবতা পালন এবং জাতীয় সংগীত ও মুজিব বর্ষের থিম সং গেয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মালয়েশিয়া শাখা ।
 
মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি মকবুল হোসেন মুকুলের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অহিদুর রহমান অহিদের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রবাসী কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ, মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার গোলাম সারোয়ার ও আওয়ামী লীগ আন্তর্জাতিক উপ-কমিটির সদস্য এ,কে ফায়জুল হক রাজু ।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় প্রবাসী কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী বলেন, ‘মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বন্ধ থাকার জন্য আমরা দায়ী না। আমার দায়িত্ব থেকে আমি কিন্তু ব্যবসায়ীর পক্ষে না, আমি কর্মীর পক্ষে । আমি যা করছি তা কর্মীদের ভালোর জন্য করছি। দ্রুত কর্মী প্রেরণ, কম খরচ এবং কাজের নিরপত্তার মতো বিষয়গুলির নিশ্চিত করা আমার প্রধান লক্ষ্য।’

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, মালয়েশিয়া বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ইমদাদুল হক, মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জামিল হোসেন নাসির, আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি কামরুজ্জামান কামাল, সহ-সভাপতি শওকত হোসেন পান্না, কাইয়ুম সরকার, মনিরুজ্জামান মনির, কামাল হোসেন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক নূর মোহাম্মদ ভুঁইয়া। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রাসেদ বাদল ।

 

বিডি প্রতিদিন/নাজমুল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর