Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০১৯ ১২:১২
আপডেট : ১৬ জুন, ২০১৯ ১৮:১৭

নিউইয়র্ক ক্রিকেট লীগের চ্যাম্পিয়ন ঈগলস ক্রিকেট ক্লাব

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে

নিউইয়র্ক ক্রিকেট লীগের চ্যাম্পিয়ন ঈগলস ক্রিকেট ক্লাব
চ্যাম্পিয়ন টিম ঈগলস ক্রিকেট ক্লাব। ছবি : এনআরবি নিউজ।

২০ দলের অংশগ্রহণে নিউইয়র্ক বাংলাদেশি ক্রিকেট লীগের টি-১০ খেলায় ব্রুকলীন লাইকেন্সকে ৩৭ রানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঈগলস ক্রিকেট ক্লাব। চ্যাম্পিয়ন টিমকে ট্রফির পাশাপাশি নগদ দুই হাজার এবং রানার আপ ব্রুকলীন লাইকেন্সকে ট্রফিসহ এক হাজার ডলার প্রদান করা হয়। 

শনিবার নিউইয়র্ক সিটির কুইন্সে বিশ্বখ্যাত ফ্লাশিং মেডোস পার্কে ফাইনাল খেলা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রবাসে খ্যাতনামা সমাজসেবামূলক সংস্থা ‘আব্দুল কাদের মিয়া ফাউন্ডেশন’র প্রতিষ্ঠাতা এবং যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ কাদের মিয়া। উৎসবমুখর পরিবেশে পুরস্কার বিতরণের সময় হোস্ট সংগঠনের ৮ প্রতিষ্ঠাতা ওয়েস আহমেদ, সারোয়ার চৌধুরী, লিসান চৌধুরী, মারজান আলম, মেহরাজ মাসুদ, শামসুল হুদা, মাকসুদুর রহমান ফয়সাল, সৈকত তালুকদার সেখানে ছিলেন। 

এবারের খেলা শুরু হয় গত ২৭ এপ্রিল। রমজানে বিরতি ছিল। টি-১০ এর খেলা শেষের দিনই একই মাঠে শুরু হয়েছে চলতি বছরের ক্রিকেট লীগ। এতে ২০ টিম অংশ নিচ্ছে। ফার্স্ট ডিভিশনে ৮ এবং প্রিমিয়ার ডিভিশনে ১২টি টিম খেলবে বলে জানান আয়োজকরা। 

টি-১০ এ আম্পায়ার ছিলেন হারিস (ভারতীয়) এবং গ্লেন (জ্যামাইকান)। 

বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণকালে আয়োজকদের পক্ষে মারজান আলম বলেন, সুদূর এই প্রবাসে ভিন্ন পরিবেশে বাংলাদেশি প্রজন্মকে ক্রিকেটে আকৃষ্ট রাখার মধ্য দিয়ে প্রকারান্তরে অবসর সময়কে ভালোভাবে অতিবাহিত করার পন্থা অবলম্বন করা হয়েছে। সাপ্তাহিক ছুটির দিন শনিবার অনুষ্ঠিত হয় ক্রিকেট খেলা। 

গত কয়েক বছর থেকেই নিউইয়র্ক বাংলাদেশি ক্রিকেট লীগ অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিপুল উৎসাহে। দিনদিন বাড়ছে এর সাথে প্রবাসীদের সম্পৃক্ততা। বিশেষ করে আমেরিকায় জন্মগ্রহণকারী বাংলাদেশি প্রজন্ম দূর-দূরান্ত থেকে এসে ক্রিকেট ক্যাম্পে অংশ নিচ্ছে।

এবারের এই খেলায় নিউইয়র্ক থান্ডার হকসের আশফাক সেরা বলার, ব্রুকলীন লাইকেন্স’র জারিফ সেরা ব্যাটসম্যান এবং সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার পেয়েছেন। এগুলো হস্তান্তর করেন ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথি সমাজসেবক ও রাজনীতিক আলহাজ আব্দুল কাদের মিয়া। এ সময় সংক্ষিপ্ত এক বক্তব্যে কাদের মিয়া বলেন, আমাদের নতুন প্রজন্মকে ক্রিকেটে আকৃষ্ট করে রাখার মধ্য দিয়ে আদর্শ নাগরিকে বেড়ে উঠতে সব সময় আমার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। আগের মত এবারও সহযোগিতার দিগন্ত প্রসারিত রেখেছিলাম। সামনের দিনেও তা অব্যাহত থাকবে। 

কাদের মিয়া উল্লেখ করেন, ফাইনাল খেলায় অংশগ্রহণকারী টিম দুটি অসাধারণ নৈপুণ্য প্রদর্শনে সক্ষম হয়েছে। এরাই একদিন আমেরিকার ক্রিকেট টিমে অন্তর্ভুক্ত হয়ে ওয়ার্ল্ডকাপে অংশ নেবে বলে আশা করছি। পুরস্কার বিতরণের সময় চট্টগ্রাম সমিতির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আশরাব আলী খান লিটনও শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন। আমেরিকায় প্রবাসীদের ক্রিকেট-আগ্রহকে পৃষ্টপোষকতার জন্যে আয়োজকরা কাদের মিয়াকেও ক্রেস্ট প্রদান করেন বিপুল করতালির মধ্যে। 

এ খেলায় অংশগ্রহণকারী অপর টিমগুলো ছিল : নিউজার্সি রয়েল, নিউইয়র্কের ওয়ারিয়র, টিম লাইকেন্স, টিম লাইকেন্স ইয়ূথ, থান্ডার হক্স, থান্ডার হক্স জুনিয়র, অরবিট-এ, অরবিট-বি, সান রাইজার্স, ভিক্টরিয়াস, সিলেট সুপার সিক্সারস, লাইয়ন্স, ফ্রেন্ডস ইউনাইটেড, বিয়ানিবাজার ইয়ং স্টার, আইডিয়ালস, পার্কচেস্টার ক্রিকেট টিম, সুরমা এবং নোয়াখালী ক্রিকেট সুপার সিক্সারস।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য