শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ মার্চ, ২০২১ ২১:২৮
আপডেট : ৭ মার্চ, ২০২১ ২২:০২
প্রিন্ট করুন printer

৭ মার্চ উপলক্ষে নয়াদিল্লীতে বাংলাদেশ হাইকমিশনের নানা কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক

৭ মার্চ উপলক্ষে নয়াদিল্লীতে বাংলাদেশ হাইকমিশনের নানা কর্মসূচি

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে নয়াদিল্লীতে বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে নানা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে সকালে দূতাবাস প্রাঙ্গণে ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোহাম্মদ ইমরান জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এরপর তিনি দূতাবাসের কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং আগত অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে দূতাবাসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

অনুষ্ঠানে হাইকমিশনার বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ১৮ মিনিটের বক্তব্যের গুরুত্বপূর্ণ দিক বিশ্লেষণ করেন এবং ইউনেস্কো কর্তৃক ২০১৭ সালে ভাষণটি বিশ্বের অন্যতম সেরা ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতির প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক এই ভাষণটি ছিল একটি পরাধীন জাতির মুক্তির দিকনির্দেশনামূলক, অনুপ্রেরণাদায়ক বক্তব্য। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের নির্দেশনা থেকেই মুক্তিপাগল বাঙ্গালী স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়েন এবং চূড়ান্তভাবে বিশ্ব মানচিত্রে বাংলাদেশের অভ্যূদয় ঘটে। তিনি বলেন, আমরা সৌভাগ্যবান যে, বঙ্গবন্ধুর রক্ত ও তাঁর আদর্শের উত্তরাধিকার।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীনেই স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসব পালন করতে যাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষ্যে দেওয়া রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয়।

৭ মার্চ উপলক্ষ্যে দূতাবাসে সন্ধ্যার অনুষ্ঠানে অংশ নেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, কূটনীতিক, স্থানীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ ও বিশিষ্ট গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব। রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিকরা এ সময়ে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের উপর নির্মিত একটি প্রামান্যচিত্র প্রর্দশন করেন। পরে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর