শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১১

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গোলহীন এক রাত

ক্রীড়া ডেস্ক

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গোলহীন এক রাত
ফরাসি ক্লাব লিঁওয়ের ডিফেন্স ভাঙার চেষ্টা লিওনেল মেসির -এএফপি

গত মৌসুমে ইতালিয়ান ক্লাব রোমার কাছে হেরে দুঃখজনকভাবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নিয়েছিল বার্সেলোনা। চলতি মৌসুমে সেই দুঃখটা ভুলতে চায় তারা। তবে শেষ ষোলোর প্রথম লেগেই বড় একটা ধাক্কা খেয়েছে কাতালানরা। গত মঙ্গলবার ফরাসি ক্লাব অলিম্পিক লিঁওয়ের মাঠে গোল শূন্য ড্র নিয়ে বাড়ি ফিরেছে বার্সেলোনা। ন্যু ক্যাম্পে দ্বিতীয় লেগের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে বার্সাভক্তদের। এদিকে এনফিল্ডে গোল শূন্য ড্র করেছে দুই ফেবারিট লিভারপুল ও বায়ার্ন মিউনিখ। দুই হেভিওয়েটের লড়াইটা এবার জার্মানিতেই শেষ হবে।

বার্সেলোনার সামনে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার সুযোগটা উন্মুক্তই আছে। তবে ভয়ের ব্যাপার হলো, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে গত ছয়টা অ্যাওয়ে ম্যাচে জয় পায়নি কাতালানরা। তিন বছর আগে আর্সেনালের মাঠে সর্বশেষ অ্যাওয়ে ম্যাচ জিতেছিল বার্সেলোনা (২-০)। সুয়ারেজের জন্যও মোটেও সুখকর হচ্ছে না চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। গত ষোলোটা অ্যাওয়ে ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোনো গোল করতে পারেনি এই উরুগুয়ের তারকা ফুটবলার। অবশ্য কোচের সমর্থন পেয়েই যাচ্ছেন ৩২ বছর বয়সী সুয়ারেজ। ভালভার্দে বলেছেন, ‘এখনো সুয়ারেজ প্রতিপক্ষের জন্য প্রতিটা ম্যাচেই মাথাব্যথার কারণ।’ কেবল তাই নয়, ভালভার্দে এমনকি অলিম্পিক লিঁওয়ের মাঠে পাওয়া গোল শূন্য ড্রকেও ইতিবাচকভাবেই নিচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা দারুণ ফুটবল খেলেছি। তবে ভালো ফুটবল খেলার পাশাপাশি পোস্টেও আঘাত করতে হয়। আমরা তা করতে পারিনি। আমরা গোল করতে ব্যর্থ হয়েছি।’ এই ব্যর্থতার সত্যিই কোনো ক্ষমা হতে পারে না। লিওনেল মেসি ডি বক্সের লাগোয়া ফ্রি কিক থেকে গোল করতে ব্যর্থ হয়েছেন। ‘ওপেন নেট মিস’ করেছেন তিনি। ফরাসি তরুণ ওসমান ডেম্বলে আর সুয়ারেজরাও কম ‘মিস’ করেননি। তবে বার্সেলোনার ভাগ্য একদিন থেকে সত্যিই ভালো। এজন্য তারা ধন্যবাদ দিতে পারে জার্মান গোলরক্ষক টার স্টেগানকে। প্রতিপক্ষের অন্তত দুটো নিশ্চিত গোল বাঁচিয়েছেন তিনি।

এদিকে এনফিল্ডে লিভারপুল-বায়ার্ন লড়াইটা হয়েছে সেয়ানে-সেয়ানে। কোনো পক্ষই হেরে যেতে রাজি ছিল না। অবশ্য লিভারপুলের আক্রমণের সংখ্যাই ছিল বেশি। গোল শূন্য ড্র হওয়াতে একটা সুবিধাও পাবে লিভারপুল। অ্যালাইঞ্জ অ্যারিনায় ১-১ গোলের ড্র করলেও শেষ আটে পৌঁছে যাবে অলরেডরা। বায়ার্নের সামনে জয়ের বিকল্প নেই।

আর জার্মানিতেও গোল শূন্য ড্র হলে টাইব্রেকারেই সিদ্ধান্ত হবে।


আপনার মন্তব্য